মেইন ম্যেনু

যারা মানুষ পুড়িয়েছে তাদের ক্ষমা নেই: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকে খুনিরা বাঁচতে দেয়নি। বঙ্গবন্ধুকে যখন হত্যা করা হয় তখন আমি দেশে ছিলাম না।বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দেশকে সোনার বাংলায় পরিণত করা। কিন্তু তাকে সেটা করতে দেয়া হয়নি।তাকে হত্যা করা হলো।

বঙ্গবন্ধু যা করতে পারেননি তা করবার জন্যই তার বড় সন্তান হিসাবে আমি দেশে ফিরে আসি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর সুযোগ বুঝে অবৈধভাবে জেনারেল জিয়া রাষ্ট্রক্ষমতায় চলে আসে। দেশে আজ গণতান্ত্রিক সরকার রয়েছে। আর আওয়ামী লীগ আছে বলেই এটা সম্ভব হয়েছে।

আজ শুক্রবার টুঙ্গিপাড়ায় শেখ রাসেল শিশু পার্কের উদ্বোধন এবং গোপালগঞ্জের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ল্যাপটপ বিতরণের পর আয়োজিত সুধী সমাবেশে বক্তৃতা রাখার সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশ পরিচালনায় আছে বলেই মানুষ কিছু পাচ্ছে।প্রতিটি সেক্টরের দিকে আওয়ামী লীগ সরকারের নজর আছে। সরকারি কর্মচারিদের বেতন আমরাই শতভাগের বেশি বাড়িয়েছি।আওয়ামী লীগ সরকারই পদ্মা সেতুর মতো কাজ হাতে দেয়ার সাহস দেখিয়েছি।

বিশ্বব্যাংকের দুর্নীতির অপবাদকে চ্যালেঞ্জ করে কাজে হাত দেই।আজ পদ্মা সেতুর বিষয়টি বাস্তবতা। আমরা কারো কাছে হাত পাততে চাই না। হাত পাততে গেলেই তারা খবরদারি করে। এই সংস্কৃতি থেকে আমরা বের হয়ে আসতে চাই। আমরা শুরু করেছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদেরকে কৃষিজাত শিল্প কারখানা গড়ে তুলতে হবে।কৃষিজাত শিল্প গড়ে তুলে কৃষিপণ্য রপ্তানি করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। এ লক্ষ্যে আমাদের সরকার কাজ করে যাচ্ছে।প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ। কৃষিকে আধুনিকায়ন করতে হবে। তিনি বলেন, আমরা যতই লেখাপড়া করি না কেন, কৃষির সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ রাখতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি দেশজুড়ে যে জ্বালাও পোড়াও করেছে তার বিচার হবে।যারা মানুষ পুড়িয়েছে তাদেরকে অবশ্যই বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।তাদেরকে কোনো ছাড় নয়।






মন্তব্য চালু নেই