মেইন ম্যেনু

যুক্তরাজ্যে আত্মঘাতী হামলার হুমকি আইএসের

এবার যুক্তরাজ্যে আত্মঘাতী বোমা হামলার হুমকি দিল জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) ইরাক ও সিরিয়ায় তাদের লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলার ‘প্রতিশোধ’ হিসেবে এই হামলার হুমকি দেয় জঙ্গিগোষ্ঠীটি।

ব্রিটেনের পার্লামেন্টে দেশটির আইনপ্রণেতারা বিমান হামলার অনুমোদন দেওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে বোমারু বিমান আইএস নিয়ন্ত্রিত তেলক্ষেত্রগুলো লক্ষ্য করে হামলা শুরু করে। ওই হামলার পরিপ্রেক্ষিতে গত বুধবার আইএস একটি ভিডিওবার্তা প্রকাশ করে এ হুমকি দেয়।

ভিডিওবার্তায় বলা হয়, ‘প্রথমে ছিল ফ্রান্স। প্রতিশোধের পালা শুরু হয়ে গেছে। রক্তগঙ্গা বয়ে যাবে।’ রোববার সানডে টাইমস পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিডিওবার্তায় একে-৪৭ রাইফেল এবং বিস্ফোরক বেল্ট পরিহিত এক আইএস যোদ্ধাকে দেখা গেছে। প্যারিস হামলাকারীদের সঙ্গে এমন বিস্ফোরক বেল্ট ছিল। প্যারিস হামলার ঘটনা স্মরণ করে দিতেই ওই যোদ্ধা এমন সাজে ভিডিওতে হাজির হয়। প্যারিস হামলায় ১৩০ জন নিহত হয়।

ভিডিওটিতে ইংরেজিতে দেওয়া বক্তৃতায় ওই যোদ্ধা ইরাক ও সিরিয়ায় আইএসবিরোধী সব পক্ষকে চলে যাওয়ার নিদের্শ দেন। ‘অন্যথায় আমাদের বন্দুক, গুলি ও বিস্ফোরক থেকে পৃথিবীর কেউ নিরাপদ থাকবে না।’

গত সপ্তাহে ইউরোপীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলো সতর্ক করে দিয়ে বলেছিল, সামনের দিনগুলোতে আইএসের হামলার লক্ষ্য হতে পারে যুক্তরাজ্য। সিরিয়া থেকে আইএস সদস্যরা ফের যুক্তরাজ্যে ফিরে এসে এ হামলা চালাতে পারে। কমপক্ষে চারশ জিহাদি সিরিয়া থেকে যুক্তরাজ্যে ফিরে আসার পরিকল্পনা নিয়েছে বলে গোয়েন্দাদের বরাত দিয়ে সানডে টাইমস পত্রিকাটি জানিয়েছে।

হাউজ অব কমন্সের স্বরাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান কিথ ভাজ বলেছেন, ‘আমরা সবকিছুই সতর্কতার সঙ্গে লক্ষ রাখছি। প্যারিস হামলার পর আমাদের দৃষ্টি এখন স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের লক্ষ্যে আসা জিহাদিদের দিকে।

তথ্যসূত্র : পিটিআই অনলাইন।






মন্তব্য চালু নেই