মেইন ম্যেনু

যুক্তরাষ্ট্রের বিমানে রহস্যজনক অসুস্থতা

যুক্তরাজ্যের লন্ডন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস যাচ্ছিল আমেরিকান এয়ারলাইনসের ফ্লাইট-১০৯। দুই ঘণ্টা ওড়ার পর বিমানের কয়েক যাত্রী ও ক্রুর মধ্যে দেখা গেল রহস্যজনক অসুস্থতা। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল বিমানজুড়ে। তখন ফ্লাইট-১০৯ উড়ছিল আয়ারল্যান্ডের ওপর দিয়ে। জরুরি ভিত্তিতে বিমানটির পথ পরিবর্তন করে লন্ডনেই ফিরিয়ে আনা হয়। গত বুধবার এ ঘটনা ঘটে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে অসুস্থ যাত্রীদের নিয়ে আমেরিকান এয়ারলাইনসের ফ্লাইট-১০৯ নিরাপদেই লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে। তবে যাত্রী ও ক্রুদের মধ্যে অসুস্থতার বিষয়টি এখনো পরিষ্কার নয়। কয়েকজন যাত্রীর বরাত দিয়ে টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, অসুস্থতার কারণে বিমানের এক ক্রু অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান।

আমেরিকান এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে যাত্রা শুরুর কিছুক্ষণ পরই দুজন যাত্রী ও কয়েকজন ক্রু অসুস্থতার কথা জানান। এ কারণে বিমানের পাইলট একে হিথ্রোতে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেন।
জানা গেছে, ফ্লাইট-১০৯-এর বোয়িং-৭৭৭ বিমানটিতে ১৭২ যাত্রী ও ১৬ জন ক্রু ছিল। এটি বিকেল ৫টার দিকে পুনরায় অবতরণ করে। বিমানটি ফিরে আসার পরপরই চিকিৎসা সহকারী (প্যারামেডিক), পুলিশ ও অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা সেখানে উপস্থিত হন। পরে চিকিৎসা কর্মকর্তাদের নির্দেশে যাত্রী ও ক্রুরা বিমানটি খালি করে দেন। পরে বিমানে থাকা ব্যাগপত্রও পরীক্ষার জন্য নেওয়া হয়।
ডেইলি টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, বোয়িং-৭৭৭ বিমানটি পরীক্ষা করেছেন হিথ্রোর কর্মীরা। তবে পরীক্ষার ফল সম্পর্কে তাঁরা কোনো তথ্য জানায়নি।

আরেক টুইটার বার্তায় লন্ডনের জরুরি সেবা বিভাগ জানিয়েছে, বুধবার বিকেলে হিথ্রো থেকে তাঁদের ডাক পড়ে। তাঁরা ছয়জন রোগীর শরীর পরীক্ষা করেন। তবে গুরুতর মনে না হওয়ায় ঘটনাস্থল থেকেই ওই অসুস্থ ব্যক্তিদের ছেড়ে দেওয়া হয়।
এনডিটিভি জানিয়েছে, আধুনিক বিমানগুলোতে কোনো কোনো সময় বায়ু সঞ্চালন ব্যবস্থার সমস্যার কারণে যাত্রী ও ক্রুদের মধ্যে অসুস্থতা দেখা যায়। এ ছাড়া ইঞ্জিনের জ্বালানিসহ বিভিন্ন কারণে বিমানের মধ্যকার বায়ু দূষিত হয়ে অসুস্থতা দেখা দিতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই