মেইন ম্যেনু

যুক্তরাষ্ট্রে গোপন তৎপরতায় চীনকে সতর্কবার্তা

যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে চীনের সরকারি কর্মকর্তাদের গোপন কর্মকাণ্ডের বিষয়ে বেইজিংকে সতর্কবার্তা দিয়েছে ওবামা প্রশাসন। দুর্নীতির অভিযোগে চীন থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে আসা সরকারি কর্মকর্তাদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যেতে কাজ করছেন এসব কর্মকর্তা।

মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, চীন থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে আসা লোকদের সে দেশে ফিরিয়ে নিতে চীনের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্মকর্তারা ছদ্মবেশে কাজ করছেন। এছাড়া বিভিন্ন দেশে পলাতক দুর্নীতবাজ কর্মকর্তাদের ফিরিয়ে আনতেও কাজ করছে সরকারি কর্মকর্তারা। চীন সরকার এ প্রকল্পের নাম দিয়েছে অপারেশন ফক্স হান্ট।

চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দারা দীর্ঘদিন ধরেই দুই দেশের মাটিতে কাজ করছে। তবে সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক লাখ সরকারি কর্মকর্তার তথ্য চুরির ঘটনা ঘটেছে। পেন্টাগন এ ঘটনায় অভিযোগের আঙ্গুল সরাসরি বেইজিংয়ের দিকেই তাক করেছে। এছাড়া দক্ষিণ চীন সাগর নিয়েও দেশ ‍দুটির কূটনৈতিক সম্পর্কে টানপোড়েন দেখা দিয়েছে।

২০১৪ সালে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং দুর্নীতিবিরোধী অভিযানের ঘোসণা দেন। এরপরই দুর্নীতির অভিযোগে অনেক সরকারি কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। অনেক কর্মকর্তা আবার গ্রেপ্তারের আগেই যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশে পালিয়ে যান। ওই বছর থেকে এ পর্যন্ত অপারেশন ফক্স হান্টের আওতায় ৯৩০ জনকে চীনে ফিরিয়ে নেয়া হয়েছে। কেবল চলতি বছরের প্রথম আট মাসেই ফিরিয়ে নেয়া হয়েছে ৭০ জনকে। মার্কিন কর্মকর্তাদের দাবি রীতিমতো অস্ত্রের মুখে এবং বিভিন্ন হুমকিধামকি দিয়ে এসব কর্মকর্তাদের গোপনে ফিরিয়ে নেয়া হচ্ছে। এছাড়া যেসব চীনা সরকারি কর্মকর্তা যুক্তরাষ্ট্রে আসছেন তারা সরকারিভাবে নয় বরং পর্যটক ভিসায় এসে এই গোয়েন্দাবৃত্তি করছেন। তাই সম্প্রতি এক চিঠিতে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা তাদের মাটিতে বেইজিংকে এ ধরণের তৎপরতা বন্ধের দাবি জানিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই