মেইন ম্যেনু

যেকোনো দেশের কম্পিউটার হ্যাক করতে পারবে এফবিআই

মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই আগামী ডিসেম্বর থেকে কেবল নিজেদের দেশে নয়, চাইলে বিশ্বের যেকোনো দেশের কম্পিউটার ব্যবস্থায় প্রবেশ করতে পারবে। এর জন্য পৃথক কোনো অনুমতির প্রয়োজন পড়বে না।

বৃহস্পতিবার আমেরিকার সুপ্রিম কোর্ট দেশটির জাস্টিস ডিপার্টমেন্টের আনা সংবিধানের ৪১ ধারা সংশোধনী প্রস্তাব অনুমোদন দিয়ে বিষয়টি পাসের জন্য কংগ্রেসে পাঠিয়েছে। কংগ্রেস এটি যাচাই-বাছাই, সংশোধন কিংবা বাতিলের জন্য ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় পাবে।

৪১ ধারা অনুযায়ী, কোনো অপরাধের জন্য কোনো ইলেকট্রনিকস ডিভাইস জব্দ কিংবা ইলেকট্রনিকস ডিভাইসের মাধ্যমে থাকা তথ্য সংগ্রহের জন্য সার্চ ওয়ারেন্টের আবেদন সংশ্লিষ্ট জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে করতে হবে। অর্থাৎ নিউইয়র্কের কারো কম্পিউটার হ্যাক করতে চাইলে এফবিআইকে নিউইয়র্কের আদালতের অনুমতি নিতে হবে।

সংশোধনীতে এফবিআইকে যুক্তরাষ্ট্রসহ এর বাইরে যেকোনো দেশের কম্পিউটার ব্যবস্থা হ্যাকের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এর জন্য পৃথকভাবে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের আদালতের অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন পড়বে না।

এই সংশোধনীর মাধ্যমে ব্যক্তিস্বাধীনতা ক্ষুণ্ন হবে বলে ইতিমধ্যে সমালোচনাও শুরু হয়েছে। দ্য হ্যাকার নিউজ নামে একটি ওয়েবসাইট জানিয়েছে, কেবল একটি ওয়ারেন্টের জোরে এফবিআইয়ের এজেন্টরা লাখ লাখ কম্পিউটার হ্যাক করে তথ্য সংগ্রহের অনুমতি পাবে। আর এর শিকার যারা হবে তারা অধিকাংশই সাইবার অপরাধী নয়।

প্রসঙ্গত, সান বার্নাদিনোতে বন্দুক হামলার ঘটনায় এফবিআই হামলাকারীদের আইফোনের লক খুলে দিতে অনুরোধ জানিয়েছিল অ্যাপলকে। কিন্তু অ্যাপল কর্তৃপক্ষ এফবিআইয়ের এ অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছিল। পরে অবশ্য এফবিআই নিজেরাই তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে এ লক খুলতে সক্ষম হয়েছিল।






মন্তব্য চালু নেই