মেইন ম্যেনু

যেভাবে আপনার মোবাইলের সর্বনাশ করছে ফেসবুক!

আজকাল মোবাইল ছাড়া আমাদের এক মুহূর্তও চলে না। আর মোবাইলের ব্যবহারের পরিধি যত বাড়ে, ততই বাড়ে মোবাইলের চার্জ দ্রুত কমে যাওয়ার সমস্যা। বার বার চার্জে বসাতে হয় ফোনটিকে। কিন্তু এবার মাত্র ২০ সেকেন্ডে মোবাইলের চার্জ দ্রুত কমে যাওয়ার সমস্যা থেকে মিলতে পারে মুক্তি।

সম্প্রতি টেকওয়ার্ল্ড জোন নামের একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা একটি সমীক্ষা চালিয়েছে, যে সমীক্ষার লক্ষ্য ছিল দ্রুত মোবাইলের চার্জ কমে যাওয়ার কারণ খুঁজে বের করা। সমীক্ষা রিপোর্টে সংস্থাটির পক্ষে জানানো হয়েছে, নিয়মিত ফুল চার্জ দেওয়ার পরেও তাড়াতাড়ি ফোনের চার্জ কমে যাওয়ার জন্য দায়ী একটি বিশেষ অ্যাপ। এবং সেই অ্যাপটি হল ফেসবুক অ্যাপ।

সমীক্ষা রিপোর্টে জানানো হয়েছে, ফেসবুক এখনকার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের জগতে সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাপগুলির অন্যতম। প্রায় ৮৫ শতাংশ ফোনে ইনস্টলড রয়েছে ফেসবুক। কিন্তু এই অ্যাপই বারোটা বাজাচ্ছে মোবাইলের ব্যাটারির।

জানানো হচ্ছে, ফেসবুক এমন একটি অ্যাপ যা সর্বক্ষণ ব্যাকগ্রাউন্ডে রান করতে থাকে। পাঠাতে থাকে নোটিফিকেশন। তাছাড়া ফেসবুক মেসেঞ্জার অ্যাপ থেকেও ক্রমাগত আসতে থাকে মেসেজ নোটিফিকেশন। ফলে যখন আপনি ফেসবুক কিংবা মেসেঞ্জার ব্যবহার করছেন না, তখনও আসলে গোপনে এই অ্যাপ ক্ষয় করে চলেছে আপনার মোবাইলের চার্জ।

সমীক্ষা রিপোর্ট বলছে, মোবাইলের অন্য সমস্ত রকম কাজকর্ম অপরিবর্তিত রেখে শুধু যদি ফেসবুক অ্যাপটি আনইনস্টল করে দেওয়া যায়, তাহলেই মোবাইলের চার্জের আয়ু ২০ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। অর্থাৎ স্বাভাবিক অবস্থায় যে ফোনে ১০ ঘণ্টা চার্জ থাকে, ফেসবুক অ্যাপটি আনইনস্টল করে দিলে দেখা যায়, সেই ফোনে ১২ ঘণ্টা চার্জ থাকছে।

তার মানে কি এবার থেকে মোবাইলে আর ফেসবুকের মজা নেওয়াই সম্ভব হবে না? সৌভাগ্যবশত তেমন সর্বনেশে কথা তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন না। বরং তাদের পরামর্শ, ফেসবুক ঘাঁটতে হলে সেই কাজ ক্রোম বা অন্য কোনও ব্রাউজার মারফৎ করাই ভাল। তাতে সারাদিন ফেসবুক নোটিফিকেশনের যন্ত্রণা থেকে মেলে মুক্তি, সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যবৃদ্ধি হয় আপনার মোবাইলের ব্যাটারিরও। অবশ্য মেসেঞ্জার না থাকলে মোবাইল থেকে ফেসবুকে মেসেজ আদান প্রদানে সমস্যা দেখা দেয়। কাজেই মেসেঞ্জারটিকে ফোনে রেখে দেওয়া ছাড়া উপায় নেই। কিন্তু মেসেঞ্জারকে রেখে শুধু ফেসবুক অ্যাপটিকে আনইনস্টল করলেই বাড়বে ফোনের ব্যাটারির আয়ু। এ ছাড়া ফোন থেকে ফেসবুক সার্ফ করার জন্য মেটাল-এর মতো কিছু অ্যাপও ব্যবহার করা যেতে পারে।

এ ছাড়া অ্যান্ড্রয়েড সেন্ট্রাল নামের আর একটি সংস্থার দাবি, ফোন থেকে ফেসবুক অ্যাপটিকে উড়িয়ে দিলে ফোনের গতিও অনেকখানি বেড়ে যায়।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষের প্রকাশিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ফেসবুক অ্যাপের বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগকে অস্বীকার করা হয়নি। বরং জানানো হয়েছে, “ফেসবুক অ্যাপ ব্যবহারের ফলে দ্রুত মোবাইলের চার্জ ক্ষয় হচ্ছে, এমন কথা আমাদেরও কানে এসেছে। আমরা যত দ্রুত সম্ভব অ্যাপটিকে আপডেট করে এই সমস্যা মোকাবিলার চেষ্টা করছি। ”






মন্তব্য চালু নেই