মেইন ম্যেনু

যেভাবে চুলের অকাল পক্কতা রোধ করবেন

আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে চুল আঁচাড়ানোর সময় হঠাৎ একটা পাকা চুল চোখে পড়ল। ব্যস, অমনি কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ে গেল। তাহলে কি বয়স হয়ে গেল আপনার?না, এটা ভুল ধারণা। শুধু বয়স হয়ে গেলেই যে চুলে পাক ধরে তা কিন্তু নয়। চিন্তা, ভুল ডায়েট, হরমোনের প্রভাব, এমনকি প্রাকৃতিক কারণে অকালে চুল পেকে যেতে পারে।কিন্তু অকালে চুল পেকে গেলে তখন কি করবেন জানেন? পাকা চুলকে কাঁচা করতে বাজারে অনেক প্রোডাক্ট বিক্রি হয়। কিন্তু এই ধরণের বাজার চলতি প্রোডাক্ট ব্যবহার না করে যাতে অকালে চুল না পাকে তার ব্যবস্থা করাই ভালো। এ জন্য ঘরোয়া জিনিস ব্যবহার করাই সবচেয়ে ভালো।তাই দেখে নিন কী কী জিনিস ব্যবহার করলে অকালে আপনার চুলে পাক ধরবে না।

আমলকি:
চুলের পক্ষে আমলকি খুবই উপকারী একটা উপাদান। বাজারে যে সমস্ত শ্যাম্পু বিক্রি হয়, তাতেও মূল উপাদান আমলকিই থাকে। তবে সে সমস্ত ব্যবহার না করে বাড়িতেই আপনি ভেষজ শ্যাম্পু তৈরি করে নিতে পারেন। কয়েক টুকরো আমলকি নারকেল তেলে ততক্ষণ পর্যন্ত সেদ্ধ করুন, যতক্ষণ না সেগুলি কালো হয়ে যায়। এরপর সেটিকে আপনার স্কাল্পে লাগান। ঘণ্টাখানেক রেখে ধুয়ে ফেলুন।

পেঁয়াজ:
চুল পড়া রোধ করতে বা চুলের অকাল পক্কতা কমাতে পেঁয়াজ খুবই উপকারী। কাঁচা পেঁয়াজের রস চুলে লাগিয়ে ঘণ্টাখানেক রেখে শ্যাম্পু করে ফেললে এই সমস্ত সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

হেনা:
চুলে হেনা বা মেহেদী করলে খুব সহজেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।






মন্তব্য চালু নেই