মেইন ম্যেনু

যেভাবে বুঝে নেবেন প্রতারক প্রেমিক/প্রেমিকা খপ্পরে পড়েছেন আপনি!

ধরুন মেয়েটির নাম অনামিকা। প্রেম করে সম্পর্ক গড়েছিল নিজেরই সহপাঠীর সাথে। বিয়ের মিথ্যা ওয়াদা থেকে যৌন সম্পর্ক হতেও দেরি হয়নি। এখন সেই ছেলেটিই ব্ল্যাক মেইল করে টাকা দিতে বাধ্য করছে অনামিকাকে। ভয় দেখাচ্ছে নিজেদের ব্যক্তিগত ছবি প্রকাশ করে দেয়ার।

কিংবা ধরুন ছেলেটির নাম শাহেদ। অনলাইনে পরিচয়, তারপর প্রেম ও বিয়ে। বিয়ের কয়েক মাস যেতে না যেতেই নববধূ অর্থ-সম্পদ-গহনা নিয়ে পালিয়ে গেলো নিজের প্রেমিকের সাথে। উল্টো মিথ্যা অভিযোগে কেস করে শাহেদকে মোটা অংকের দেনমোহর দিতে বাধ্য করলো। সংসার, সম্মান, শান্তি সব হারিয়ে শাহেদ এখন নিঃস্ব।

হ্যাঁ, এগুলো আজকাল খুবই সাধারণ কাহিনী। প্রথমে প্রেম, তারপর যৌন সম্পর্ক উপভোগ করে ছেড়ে দেয়া। কিংবা প্রেমের নামে বড় অংকের টাকা ও মূল্যবান গিফট হাতিয়ে নিয়ে কেটে পড়া। বিয়ের মিথ্যা ওয়াদা করা, নিজের সত্যিকারের পরিচয় গোপন করে মিথ্যা সম্পর্ক গড়ে তোলা, ব্ল্যাক মেইলিং ইত্যাদি সবই দিন দিন খুবই সাধারণ বিষয়ে পরিণত হচ্ছে। কেবল পুরুষেরাই নন, বিপুল সংখ্যক নারীও এই প্রতারণার সাথে যুক্ত। মানুষকে ঠকিয়ে চলাই যেন এক শ্রেণীর মানুষের কাজ এখন। যখন আমরা প্রতারিত হই, তখন কিন্তু বিন্দুমাত্র আন্দাজ করতে পারি না যে প্রতারকের খপ্পরে পড়েছি। তারপর সময় পেরিয়ে গেলে সব হারিয়ে আফসোস করতে হয়। কী করতে পারেন নিজের নিরাপত্তার জন্য? জেনে রাখুন খুব জরুরী কিছু তথ্য। এই ব্যাপারগুলো আপনাকে একজন প্রতারককে চিনে নিতে ভীষণ সহায়তা করবে আপনাকে।

১) একজন প্রতারক প্রেমিক বা প্রেমিকার মূল আগ্রহ থাকবে যৌন সম্পর্কের দিকে। আপনার রূপ ও সৌন্দর্যের দিকেই বেশী আগ্রহ দেখায়, এমন পুরুষ থেকে দূরেই থাকুন। অন্যদিকে যা নারী নিজে থেকেই আপনার সাথে যৌন সম্পর্কে আগ্রহী, তার থেকেও দূরে থাকবেন অবশ্যই।

২) আপনাকে স্বার্থপরের মত নিজের স্বার্থে ব্যবহার করে, এমন কাউকে ভালোবাসার ভুল করবেন না।

৩) নানা প্রয়োজনের কথা বলে টাকা নেয় বা চায়, এমন মানুষকে প্রশ্রয় দেবেন না।

৪) যে নিজের পরিবারের সাথে আপনার পরিচয় করিয়ে দিতে পারে না, নিশ্চিত থাকুন সে ধোঁকা দেবেই। বন্ধুদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া কোন বড় ব্যাপার নয়।

৫) আপনার অলক্ষ্যে অন্য নারী/পুরুষদের সাথে অহেতুক ঘনিষ্ঠতা প্রতারণারই লক্ষণ।

৬) একান্ত মুহূর্তের ছবি তুলতে চাওয়া বা ভিডিও করা মোটেও ভালো উদ্দেশ্য হতে পারে না।

৭) প্রতারক পুরুষ কখনো আপনার জন্য কিছু করবেন না। আপনি তার জন্য কী করছেন সেটাই তার জন্য জরুরী।

৮) প্রতারক নারী হয় মুডি, আপনার আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতি উদাসীন। অতিরিক্ত মিষ্টি বা অতিরিক রুক্ষ্ম ব্যবহার দুটিই প্রতারণার লক্ষণ।

৯) প্রকারকেরা কেবল নিজের ব্যাপার নিয়েই ভাবেন। কেবল আপনার নয়, অন্য কারো আবেগের বা সম্মানের মূল্য যে দেয় না, তার কাছ থেকে অবশ্যই দূরে থাকুন।

মডেল- তুর্য, লী গোমেজ, মেহের নিগার

সূত্র-
সাইকোলজি টু ডে
বিউটি মান্ত্রা






মন্তব্য চালু নেই