মেইন ম্যেনু

যৌন কেলেংকারি, ফুটবলার জনসনকে ছেড়ে গেলো বান্ধবী

ইংল্যান্ডের ফুটবলার অ্যাডাম জনসন কিশোরী মেয়েদের সঙ্গে যৌন কেলেংকারির মামলায় ফেঁসে গেছেন। এ ঘটনায় জনসনের কন্যা সন্তানের মা স্ট্যাকেসি ফ্লাউন্ডার্স তাকে ছেড়ে চলে গেছে। ফুটবলার জনসন ১৫ বছরের এক কিশোরীকে যৌন নির্যাতন করেন। সেই মামলায় তাকে ২০১৫ সালের মার্চ মাসে গ্রেফতার করা হয়।

জানা গেছে, জনসন ১৫ বছরের কিশোরী ছাড়াও ১৬ বছর বয়সী আরেকটি মেয়ের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করেন। এর বাইরে তিনি অনেক নারীর সঙ্গে যৌন বার্তা চালাচালি করেছেন। জনসনের বান্ধবী স্ট্যাকেসিকে মামলার শুনানির সময় কোর্টে জনসনের বাবার পাশে দেখা গেছে। তবে স্ট্যাকেসির পরিবার বলছে, চাপে পড়ে স্ট্যাকেসিকে জনসনের পাশে থাকতে হয়েছিলো।

বিমানবালা স্ট্যাকেসি বলেন, ‘জনসনের সঙ্গে আমার সম্পর্ক নষ্ট হয়ে গেছে। তবুও আমরা বন্ধু হয়ে থাকতে চাই। আমি মনে করি, জনসনের বেশি সাজা হবে না। জনসন আমার সঙ্গে প্রতারণা করেনি। সে আমার কাছে সব কিছু খুলে বলেছে।’

এদিকে স্ট্যাকেসির পরিবার বলছে, জনসনের সঙ্গে স্ট্যাকেসিও তদন্তের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। সামাজিক মাধ্যমে জনসনের সঙ্গে স্ট্যাকেসির ছবিও ছড়িয়ে পড়ছে। সামাজিক মাধ্যমে তাকে আক্রমণ করা হচ্ছে। স্ট্যাকেসির পরিবারের এক সদস্য বলেন, ‘জনসনের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার আগে স্ট্যাকেসি বিমানবালা ছিলেন। তার গাড়ি ছিল। তার রুচি খবুই উন্নত। স্ট্যাকেসির সঙ্গে জনসনের প্রেমের বিষয়টি আমি জানতাম। কিন্তু কখনো ভাবিনি সে এতো তাড়াতাড়ি সংসার শুরু করবে। স্ট্যাকেসির গর্ভবতী হওয়ার খবর আমাকে অবাক করে।’ সামাজিক মাধ্যমের চাপ ও মামলার তদন্তের ঝামেলায় পড়ে কন্যা সন্তানের জননী স্ট্যাকেসি জনসনের সঙ্গে আর একই ছাদের নিচে থাকবেন না বেলে জানিয়ে দিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই