মেইন ম্যেনু

যে কারণে একটি লাইভ ভিডিও সম্প্রচার বন্ধ করে দিল নাসা!

৬০০ বিলিয়ন গ্যালাক্সির মধ্যে একমাত্র আমরাই কি সব থেকে উন্নত জীব? প্রশ্নটি বহুবার বহু জায়গায় উঠেছে। প্রত্যেকবারই নানা তত্ত্ব, তথ্যে সত্যি-মিথ্যার মাঝেই আটকে গিয়েছে বিজ্ঞান বনাম বিশ্বাস।

সম্প্রতি নাসা-র স্পেস স্টেশন থেকে যে লাইভ ফুটেজ দেখা গেল, তাতে একটা দিকেই বারবার ইঙ্গিত করছে, না আমরা একা নই। এই বিশাল মহাকাশে অন্য কোথাও এমন জীব রয়েছে যারা মহাকাশযানের ব্যবহার জানে।

স্পেস স্টেশন থেকে নাসা-র উপগ্রহ ক্যামেরা থেকে তোলা একটি লাইভ ভিডিও ফুটেজ প্রধানকার্যালয়ে পাঠানো হচ্ছিল। হঠাত্‍ই মাঝপথে সেই ভিডিও স্ট্রিমিং বন্ধ করে দেওয়া হয়। কারণ হিসাবে বলা হয়, যে পর্যাপ্ত সিগনাল না থাকায় সম্প্রচারটি বন্ধ করা হয়।

সেই ভিডিওটি পরে পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল থেকে দ্রুত বেগে তিনটি মহাকাশযান মহাকাশে মিলিয়ে যাচ্ছে। বেশ খানিকটা দূরে থাকায় তা খালি চোখে ধরা পড়ছিল না। জুম করে দেখার পর সেটি স্পষ্ট হয়।

সেখানে দেখা যায় বেশ কয়েকটি আলোকবিন্দু অত্যান্ত দ্রুত গতিতে মহাকাশে মিলিয়ে যাচ্ছে। ফুটেজটি ছড়িয়ে পড়লে তা পৃথিবীতে যথেষ্ট আলোড়ন ফেলতে পারে। সম্ভবত সে কারণেই ফুটেজটির লাইভ সম্প্রচারণ বন্ধ করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে এটা প্রথম নয়। এর আগেও নাসা-র স্পেস স্টেশনের ক্যামেরায় এমন কার্যকলাপ লক্ষ্য করা হয়েছে। যে কোনও কারণেই হোক, তা সর্বসমক্ষে আনা হয়নি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যদি ক্যামেরা আরও খানিকটা শক্তিশালী হতো, তবে বিষয়টি আরও স্পষ্টভাবে বোঝা যেত। তবে যে ফুটেজটি পাওয়া গিয়েছে, তাতে একটা জিনিস বোঝা যাচ্ছে, এত দ্রুত গতিতে কোনও মহাকাশযান ছাড়া অন্য কিছু উড়তে পারে না।






মন্তব্য চালু নেই