মেইন ম্যেনু

যে কারণে পর্ন দেখার সময় মেয়েরা অস্বাভাবিক হয়ে যায়!

পর্নোগ্রাফি দেখার সময় স্বাভাবিক যৌনতাই বেশি পছন্দ করেন বেশির ভাগ পুরুষ। অন্য দিকে মহিলাদের অধিকাংশই সমকামী অথবা বিকৃত যৌন মিলনের ভিডিও দেখে উত্তেজনার শিখরে পৌঁছন। সম্প্রতি এমনই তথ্য মিলেছে এক সমীক্ষায়।
নারী-পুরুষের যৌন তৃপ্তিতে আসমান-জমিন ফারাক। দুই ভিন্ন মেরুর মানসিকতার হদিশ পেতে সম্প্রতি সমীক্ষার ব্যবস্থা করে প্রাপ্তবয়স্কদের একটি ওয়েবসাইট।ইন্টারনেটে পর্নোগ্রাফি দেখার অভ্যাস পর্যালোচনা করে দুই লিঙ্গের যৌন আকাঙ্খা ও তৃপ্তির হিসেব বোঝার চেষ্টা করেন বিশেষজ্ঞরা।

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, মহিলারা অনেকেই সোজা-সাপ্টা যৌনতা দেখতে পছন্দ করেন না। তারা বরং অনেক বেশি তৃপ্তি লাভ করেন সমকামী বা বিকৃতকামী পর্নোগ্রাফি। সাধারণ নারী-পুরুষের যৌন মিলনের দৃশ্য খুব কম সংখ্যক নারীকেই উত্তেজিত করে।অন্য দিকে, পুরুষরা আবার একাধিক যৌন সঙ্গীর সঙ্গে মিলনের দৃশ্য দেখতে ভালোবাসেন। এক নারী ও দুই পুরুষ অথবা দুই নারী সঙ্গীর সঙ্গে একযোগে রতিসুখ উপভোগের দৃশ্য তাদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে।

এছাড়া কিশোরী আর মধ্যবয়সীনিদের সঙ্গে যৌন মিলনের ভিডিও দেখে উত্তেজিত হন অধিকাংশ পুরুষ।সমীক্ষা রিপোর্ট অনুসারে, গত কয়েক মাসে সমকামী যৌনতার ভিডিও দেখার হার ১৩২ শতাংশ বেড়েছে। পর্নোগ্রাফি সাইটের পুরুষ ইউজারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি কদর কিম কার্দাশিয়ার। পাশাপাশি, নারীর পছন্দের তালিকার শীর্ষে রয়েছেন মাইলি সাইরাস।






মন্তব্য চালু নেই