মেইন ম্যেনু

যে কারণে স্বামী-সন্তানের ছবি প্রকাশ করতে চাননি শাবনূর

ঢাকাই চলচ্চিত্রের এক সময়ে দাপুটে নায়িকা শাবনূর। বছর চারেক আগে হঠাৎ করেই অনিক মাহমুদ নামের এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে তাঁর বিয়ের খবর প্রকাশিত হয়।

২০১৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর জানা যায়, শাবনূর পুত্র সন্তানের মা হয়েছেন। বিয়ের পর শাবনূর কোনো দিন নিজের ইচ্ছেতে সংবাদমাধ্যমের কাছে স্বামী ও সন্তানকে পরিচয় করিয়ে দেননি। তারকার স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে ভক্ত ও সাধারণ মানুষের আগ্রহ থাকা সত্ত্বেও বিষয়টি বরাবরই এড়িয়ে চলেছেন শাবনূর। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা আর ঠিক থাকেনি। দেখা মিলেছে শাবনূরের স্বামী ও সন্তানের ছবি। কিন্তু কি কারণে শাবনূরের এমন সিদ্ধান্ত তা নিয়ে প্রথম আলোর সঙ্গে সম্প্রতি কথা বলেছেন তিনি নিজে।

এ প্রসঙ্গে শাবনূর বলেন, ‘বলতে পারেন, নায়িকা হওয়ার কারণে আমাকে স্বাভাবিক জীবন বিসর্জন দিতে হয়েছে। মন চাইলেও কখনো নিজের মতো করে বাইরে কোথাও ঘুরে বেড়ানো সম্ভব হয়নি। বাধ্য হয়ে বোরকা পরে বের হতে হয়েছে। কিন্তু আমারও তো ইচ্ছে করে, অন্যদের মতো করে ঘুরে বেড়াতে। কিন্তু তা কি আর হয়। বিয়ের পর তাই ভেবেছি, আমার স্বামী আর সন্তানকে যদি সাধারণ মানুষ না চেনেন হয়তো তাহলে তাঁদের সঙ্গে অন্তত বাইরে মনের আনন্দে ঘুরে বেড়াতে পারব। সেই ভাবনা থেকেই আসলে আমি স্বামী ও সন্তানকে সবার সামনে তুলে ধরতে চাইনি।’

উদাহরণ টেনে শাবনূর বলেন, ‘সপ্তাহ দু-এক আগে আমরা সবাই মিলে কক্সবাজার বেড়াতে গিয়েছিলাম। সমুদ্র সৈকতে নির্বিঘ্নে ঘুরে বেড়িয়েছি। স্বামী, সন্তানের সঙ্গে বোরকা পরেই ঘুরেছি। সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশে আনন্দ করছি। কেউ আমাকে চিনতে পারেনি। আমি আসলে এই আনন্দ থেকে বঞ্চিত হতে চাচ্ছিলাম না আর কি। তা ছাড়া, আমার স্বামীও টিভি আর পত্রিকায় চেহারা দেখানোর ব্যাপারে অতটা আগ্রহী নন।’সূত্র: প্রথম আলো।






মন্তব্য চালু নেই