মেইন ম্যেনু

যে খাবারগুলো ভুলেও রাখবেন না ফ্রিজে

দৈনন্দিন জীবনের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় জিনিসটি হল ফ্রিজ। আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে ফ্রিজ ওতপ্রেতভাবে জড়িত। ফ্রিজের উপর আধুনিক সময়ের মানুষেরা অনেক বেশি নির্ভরশীল। কোন কারণে ফ্রিজ নষ্ট হলে পড়তে হয় নানান সমস্যায়। খাবার ভাল রাখার জন্য ফ্রিজ ব্যবহার করা হয়। কিন্তু কিছু কিছু খাবার আছে যা ফ্রিজে না রাখাই ভাল। ফ্রিজ ছাড়াই এই খাবারগুলো ভাল থাকে অনেক দিন।

১। টমেটো

নানান পুষ্টিগুণ সম্পূর্ণ টমেটো অনেকেই ফ্রিজে রাখেন। কিন্তু টমেটো ফ্রিজে রাখলে এর গুণাগুণ নষ্ট হয়ে যায়। এর গন্ধ নষ্ট হয়ে যায়। ফ্রিজের ঠান্ডা বাতাস এর পাকানোর প্রক্রিয়াকে নষ্ট করে ফেলে, আকারেও পরিবর্তন আনে। এমনকি ফ্রিজের রাখা টমেটো দ্রুত শক্ত হয়ে যায়।

২। কেচাপ

নুডলস কিংবা চপের সাথে টমেটো কেচাপ না হলে চলেই না। এই কেচাপ অনেকে ফ্রিজে রেখে থাকেন। কেচাপ অ্যাসিড হওয়া এটি ফ্রিজে রাখার প্রয়োজন নেই। সাধারণত তাপমাত্রায় এটি ভাল থাকে। কেচাপের বোতলের গায়ে যদি ফ্রিজে রাখার কথা বলা হয় তাহলে অবশ্য রাখতে হবে।

৩। পেঁয়াজ

অনেকে পেঁয়াজ ভাল রাখার জন্য ফ্রিজে রেখে দেন। পেঁয়াজ ফ্রিজে রাখা হলে ফ্রিজের ঠান্ডা আবহাওয়া আপনার পেঁয়াজ নরম ও নিস্তেজ করে ফেলবে। পেঁয়াজ বহুদিন ভালো রাখতে চাইলে পেপারের ব্যাগে ভালো করে মুড়িয়ে ঠান্ডা কোন স্থানে রাখলে পেঁয়াজ তাজা থাকবে। এছাড়া আলু ও পেঁয়াজ কখনও একসাথে রাখবেন না।

৪। রসুন

রান্নার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রসুন। অনেকেই রসুন ফ্রিজে রেখে থাকেন। রসূন ফ্রিজে রাখলে এর স্বাদ ও গন্ধ চলে যায়। এমনকি খুব তাড়াতাড়ি রসুন পচেও যায়।

৫। কফি

কফিকে ফ্রিজে রাখলে এটির গুণাগুণ নষ্ট হয়ে যায়। কফির গন্ধ চলে গিয়ে সেখানে দুর্গন্ধ তৈরি হয়।

৬। মধু

মধুকে সংরক্ষণ করতে চাইলে তা ফ্রিজে রাখার পরিবর্তে বাইরে ঠান্ডা জায়গায় রাখতে পারেন। বাহিরে ঢাকনা ভালোভাবে লাগিয়ে রাখলে মধু অনেকদিন ভালো থাকে। ফ্রিজে রাখলে মধুর ভিতরে দানা বেঁধে যেতে পারে।

৭। কলা

অনেকে কলা দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করার জন্য ফ্রিজে রাখে। কিন্তু ফ্রিজে রাখার কারণে কলার খোসা দ্রুত বাদামী হয়ে যায় এবং দ্রুত পেকে যায়।

৮। পাউরুটি

পাউরুটি ফ্রিজে রাখলে ফ্রিজের তাপমাত্রা পাউরুটির আর্দ্র ভাব নষ্ট করে শুষ্ক করে ফেলে। দীর্ঘদিন পাউরুটি ভাল রাখতে চাইলে একটি পরিষ্কার কাপড় বা কাগজ দিয়ে পাউরুটি পেঁচিয়ে রাখুন।






মন্তব্য চালু নেই