মেইন ম্যেনু

যে ১০ কারণে কোমল পানীয়কে ‘না’ (ভিডিও)

পৃথিবীর অনেকে দেশেই মানুষ বিশুদ্ধ খাবার পানির চেয়ে ঢের বেশি পান করেন সফট ড্রিংকস বা কোমল পানীয়। যাতে মিশ্রিত্ থাকে সোডা, ক্যাফেইনসহ বিভিন্ন ধরনের আসক্তিকারক উপাদান।

এ নিযে একাধিক গবেষণা করেছেন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুলের গবেষকরা। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় সাময়িকী টাইম ম্যাগাজিনসহ আন্তর্জাতিক জার্নালগুলোতে এ নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে একাধিক নিবন্ধ। তাতে গবেষকদের দাবি কার্বানেটেড ওয়াটার সমৃদ্ধ সফট ড্রিংকসের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কোনো উপকারিতা খুজেঁ পাননি তারা। যে তথ্য প্রকাশ করেছেন তারা তা শুনলে বিস্মিত হবেন আপনিও।

বাড়তে পারে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি

একটি ছোট সফট ড্রিংকসের বোতলে দশ চা চামচ পরিমাণে চিনি থাকে। তবে তা থাকে লিকুইড বা তরল আকারে। যেটা গ্রহণে শরীরে ইনসুলিন রিঅ্যাকশন শুরু হয়। যেটাকে ডায়াবেটিসের ঝুঁকির কারণ হিসেবে বিবেচনা করছেন খোদ যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসকেরা। তারা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সফট ড্রিংকস কোম্পানিগুলোতে সবচেয়ে বেশি পরিমাণে চিনি ব্যবহৃত হয়। যেটা শরীরের নানারকম জটিলতার কারণ।

খাবার থেকে প্রয়োজনীয় পুষ্টিগ্রহণে বাধা

সফট ড্রিংকসে অতিমাত্রায় ফসফরিক এসিড থাকায় তা শরীরে ক্যালসিয়াম সরবরাহে বাধার সৃষ্টি করে এবং এর ফলে অস্টিওপোরোসিস হতে পারে। ফসফরিক এসিড পাকস্থলিতে বিক্রিয়া করে খাবার থেকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি গ্রহণে বাধার সৃষ্টি করে এবং হজম প্রক্রিয়ায় জটিলতার কারণ হতে পারে।

ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যায়

ডায়েট সোডায় চিনির বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা হয় এসপারটেম যেটা কিনা চিনির চেয়েও বেশি ক্ষতিকর। এ উপাদানটি কমপক্ষে ১০০ রোগের কারণ হতে পারে। এর ফলে হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, ব্রেইন টিউমার, মস্তিস্কে পীড়া, মানসিক পীড়াসহ নানারকম জটিল রোগব্যধি হতে পারে। ডায়েট সোডা বিপাকক্রিয়ায় জটিলতা তৈরি করে। এতে পেটে চর্বি বেড়ে যায়। উচ্চ ব্লাড সুগার এবং রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রাও বেড়ে যায়।

হৃদরোগীদের জন্য ঝুকিঁপূর্ণ

অধিকাংশ সোডায় যুক্ত থাকে ক্যাফেইন। যার সঙ্গে ক্যান্সার, স্তন ফুলে যাওয়া, অনিয়মিত হার্টবিট, উচ্চ রক্তচাপসহ বিভিন্ন রকম শারীরিক সমস্যা দেখা যায়।

মুটিয়ে যেতে পারেন আপনি

হার্ভার্ডের গবেষকরা জানিয়েছেন, সফট ড্রিংকসের সঙ্গে সরাসরি স্থুলতার সম্পর্ক রয়েছে। ১২ বছর বয়সী শিশুদের নিয়ে এক গবেষণায় দেখা গেছে যেসব শিশুরা সোডা পান করে তাদের মধ্যে স্থুলতার হার বেশি। নিয়মিত সফট ড্রিংকস খেলে স্থুলতার ঝুকিঁ বাড়ে দেড়গুণেরও বেশি।

কিডনি বেহাল

সোডায় থাকে উচ্চ মাত্রায় ফ্রুকটোস কর্ন সিরাপ। এর ফলে অতিমাত্রায় মুটিয়ে যাওয়া ছাড়াও যকৃতের ক্ষতির কারণ হতে পারে।

নেই কোনো পুষ্টিগুণ

সোডা মিশ্রিত পানীয়তে কোনো পুষ্টিগুণ নেই। এটা শুধু স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকরই নয় এমনকি এগুলো পান করলে শরীরের বিশেষ কোনো উপকারও হয় না।

পানিশূণ্যতা দেখা যেতে পারে

সোডা মিশ্রিত পানীয়তে উচ্চমাত্রায় চিনি, সোডিয়াম এবং ক্যাফেইন থাকায় শরীর থেকে পরবর্তীতে প্রচুর পানি প্রস্রাবের মাধ্যমে বেরিয়ে যায়। এতে শরীরে পানি শূণ্যতা দেখা যেতে পারে।

দাতেঁর ক্ষতি হয়

নিয়মিত কোমল পানীয় পান করলে দাতেঁর এনামেল ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে।

হাঁড় ক্ষয়

সফট ড্রিংকসের বিজ্ঞাপনে মূলত তরুণদের দিকে বিশেষভাবে নজর দেওয়া হয়। যেটাকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন না হার্ভার্ডের গবেষকরা। গবেষকরা জানিয়েছেন, নিয়মিত দুধ খেলে যেমন শরীরের মেরুদণ্ড ও হাঁড় মজবুত হয়, সফট ড্রিংকস খেলে হয় তার ঠিক উল্টে। একটা উপাদান শরীর গড়ে। অন্য উপাদান কাজ করে ঠিক তার উল্টো।

হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুলের গবেষকদের এ সংক্রান্ত ভিডিওটি দেখুন:






মন্তব্য চালু নেই