মেইন ম্যেনু

যে ১২টি কাজ করার পর নিজেকে দোষ দেবেন না কখনোই!

জীবনে অনেক কিছুর জন্যই আমাদের অনুশোচনার শেষ থাকে না। একটা কাজ করে ফেলার পর তীব্র অনুশোচনায় ভুগে বা দশ জনের কথা শুনে দোষারোপ করতে থাকি নিজেদেরকেই। কিন্তু আসলেই কি এই কাজটি ঠিক? অন্যের কথা ভাবতে গিয়ে আপনি নিজের সাথেই অবিচার করে ফেলছেন না তো? তাহলে এখনই সময় ঘুরে দাঁড়াবার। জেনে নিন কোন ১২টি কাজ করে ফেলার পর মোটেও নিজেকে দোষ দিতে নেই। বরং এই কাজগুলো যত আগে করবেন, ততই সুখী হবেন জীবনে।

১) আপনি আবেগী মানুষ বলে কখনো লজ্জিত হবেন না। আবেগ থাকা মোটেও দোষের কিছু নয়। মানুষ হলে আবেগ থাকবেই, আবেগহীন মানুষ রোবট ছাড়া আর কিছু নয়। তাঁরা বেঁচে থাকার কোন আনন্দই পান না।

২) আবেগ যেহেতু আছে, আবেগের প্রকাশও থাকবে। বকার সামনে কেঁদে ফেললেন বা রাগ দেখিয়ে ফেললেন বলেই কাজটা খুব খারাপ হলো, বিষয়টা মোটেও তা নয়। আবেগের প্রকাশ আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

৩) কেউ আপনাকে অবহেলা করলো বা কষ্ট দিল বলে তাঁর কাজের জন্য নিজেকে দোষ দেবেন না বা নিজেকে অযোগ্য মনে করবেন না। কেউ দাম দিল না বলেই আপনি অযোগ্য হয়ে যান না।

৪) জীবনে ছোট ছোট কেবল নয়, বড় ব্যর্থতাও থাকবে। বারবারও আস্তে পারে এই ব্যর্থতা। ব্যর্থ হলেই বলেই আপনি হেরে গেলেন বা আপনি দোষী, বিষয়টি মোটেও তা নয়।

৫) নিজের সিদ্ধান্তের জন্য নিজেকে দোষারোপ করে লাভ নেই। যেটা হয়ে গেছে বা আপনি করে ফেলেছেন, সেটাকে বদল করতে পারবেন না। তাই অকারণে অন্যের সাথে নিজেকে তুলনা করে কষ্ট পাবেন না। কারো সাথে কারো জীবন মেলে না। অন্য কেউ একই কাজে সফল হয়েছে বলে আপনিও হবেন, এমন কোন কথা নেই।

৬) মানুষ হয়ে জন্মেছেন যখন, হরেক রকম প্রয়োজন থাকবেই। সেটা শারীরিক, মানসিক, সামাজিক সবরকম হতে পারে। সেগুলো বলতে বা সেগুলো নিয়ে লজ্জিত হবার কিছু নেই।

৭) মাঝে মাঝে ছোট্ট কিছুই আমাদের অনেক আনন্দ দেয়। যেমন একটু বেশী খেয়ে ফেলা বা একটু রাত জেগে টি ভি দেখা, কখনো কাজে ফাঁকি দেয়া। এগুলো নিয়েও মনে কষ্ট পাবার কোন কারণ নাই।

৮) মাঝে মাঝে আমরা রেগে যাই, হয়তো চিৎকার চেঁচামেচি করি, নিজের ওপরে নিয়ন্ত্রণ হারাই বা কারো সাথে বাজে ব্যবহার করি। এই কাজটা করে পরে খুবই খারাপ লাগে আমাদের সবারই। কিন্তু তাই বলে খুব বেশী কষ্ট পাবেন না। আমরা মানুষ, মাঝে মাঝে এমন হতেই পারে।

৯) সবার আগে নিজের স্বার্থ চিন্তা করে মোটেও অপরাধের না।

১০) হ্যাঁ, আমরা মাঝে মাঝে ভুল মানুষকে বিশ্বাস করি। করে প্রতারিত হই, কষ্ট পাই। তবে এটা আপনার দোষ না। যে বিশ্বাস ভেঙে ধোঁকা দিল,তার দোষ।

১১) সম্পর্ক গড়বে, আবার সম্পর্ক ভাঙবে। ভাঙা সম্পর্কের জন্য মনকষ্টে ভুগবেন না।

১২) অতীতে যা হয়েছে তা বদল করার ক্ষমতা কারো নেই। তাই খব বেশী না ভেবে অতীতকে অতিতেই থাকতে দিন।

সূত্র-
এলিট ডেইলি ও হাফিংটন পোস্ট






মন্তব্য চালু নেই