মেইন ম্যেনু

যে ১৩টি অভ্যাসের কারণে নিজেই নিজেকে করে ফেলছেন স্ট্রেসড

স্ট্রেস আছে সবার জীবনেই। কাজের স্ট্রেস থাকবেই, কিন্তু নিজে থেকেই নিজের স্ট্রেস তৈরি করেটা খুবই বোকামি। আমরা নিজেরাই নিজেদের ভুলে এমন সব কাজ করে থাকি যার ফলে ভীষণভাবে বেড়ে যায় আমাদের স্ট্রেস। দেখুন তো, এসব অভ্যাস আপনারও আছে কি না?

১) অতিরিক্ত চা-কফি পান

স্ট্রেসে থাকলে নিজেকে একটু চাঙ্গা করে তলার জন্য অনেকেই চা অথবা কফি পান করেন অন্য দিনের তুলনায় বেশি। কিন্তু এগুলো আপনাকে অযথাই আরও বেশি চিন্তিত করে তুলবে, খুঁতখুঁতে মনোবৃত্তি এনে দেবে। ফলে স্ট্রেসের সময়ে একটু রয়েসয়ে চা-কফি পান করুন।

২) ক্রমাগত অভিযোগ

স্ট্রেসের সময়ে কোনো কাছের মানুষের কাছে বসে সমস্যার কথা বললে মনটা হালকা হয় সত্যি। কিন্তু তাই বলে ক্রমাগত নিজের ব্যাপারে অভিযোগ করতেই থাকলে সমস্যা আরও প্রকট হয়। সমস্যা নিয়ে এতো বেশি চিন্তা করবেন না। সমস্যাটা কাউকে খুলে বলুন, এরপর এ ব্যাপারে মাথা ঘামানোর কোনো দরকার নেই।

৩) বেশি চিন্তা করা

যার ওপরে আপনার কোনো হাত নেই, তা নিয়ে চিন্তা করা বোকামি। আপনি যতই চিন্তা করুন এতে কোনো পরিবর্তন আসবে না। সুতরাং এ নিয়ে স্ট্রেস বাড়ানোর মানে হয় না।

৪) অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া

মাথায় চিন্তা ভর করে থাকলে বড় এক টুকরো পনিরে ভরা পিজ্জা অথবা এক বাটি আইসক্রিম খেলেই মন ভালো হয়ে যায়। কিন্তু আসলে কি এটা ঠিক? এটা শরীরের জন্য যেমন খারাপ তেমনি মনটাও বেশিক্ষণ ভালো রাখতে পারে না।

৫) সহজেই আবেগপ্রবণ হয়ে যাওয়া

আমরা মানুষ, আমাদের মাঝে আবেগ থাকবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আবেগের আতিশয্যে যেন আমরা অভিভূত হয়ে না পড়ি সহজে। বুক ভরে নিঃশ্বাস নিন, এরপর একটা কাজ বেছে নিয়ে করা শুরু করুন। আবেগের স্রোতে নিজেকে হারিয়ে ফেলবেন না।

৬) যথেষ্ট না ঘুমানো

ঘুম ঠিকমতো না হলে আমাদের ক্লান্ত লাগবে, সহজেই রাগ উঠবে মাথায় আর শরীরটাও কাজ করতে চাইবে না। এ অবস্থায় সাধারণ একটি কাজেই স্ট্রেস তৈরি হবে। তাই ঘুমান প্রয়োজনমতো।

৭) ব্যায়াম না করা

ভীষণ কাজের চাপ। এর মাঝে আবার ব্যায়াম? কিন্তু স্ট্রেস দূর করতে ব্যায়াম অনেক বেশি কার্যকরী। ঘুমাতে যাবার আগে কিছু হালকা ব্যায়াম করে নিতে পারেন সময়ের অভাব মনে হলে।

৮) নিজের ওপর অতিরিক্ত কাজ চাপানো

শুধু কাজ দিয়েই জীবন চলবে না, বিশ্রামের জন্যও তো সময় রাখতে হবে। এই সময়টা নিজেকে দিতে না পারলে ক্রমাগত বাড়তেই থাকবে স্ট্রেস।

৯)একাই একশো হবার চেষ্টা

নিজে থেকেই সব কাজ করতে চাইলে সব সমস্যা আপনার ঘাড়ে এসে পড়বে। সবার সাথে মিলেমিশে কাজ করার চেষ্টা করুন। জেনে রাখুন আপনি সুপারম্যান নন।

১০) খারাপ চিন্তা

ভালো-খারাপ দুই নিয়েই জীবন। আপনি যদি ভালো ব্যাপারে চিন্তা না করে কেবল খারাপ ব্যাপারে চিন্তা করেন তবে আপনার স্ট্রেস বাড়বে অনেক বেশি। স্ট্রেস ম্যানেজ করাও তখন অসম্ভব হয়ে পড়বে।

১১) কাজ ফেলে রাখা

কোনো কাজ করতে আপনার ভালো লাগে না, অস্বস্তি লাগে, যেমন সবার সামনে প্রেজেন্টেশন দেওয়া। কিন্তু কাজটি ফেলে রাখলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে যাবে। ফলে কষ্ট হলেও যে কাজটা ভালো লাগে না তা আগে করে নিন।

১২) রাগ দেখানো

নিজের ওপরে চাপ থাকলে অন্যদের ওপর রাগ ঝাড়েন কেউ কেউ। এটা মোটেই ঠিক নয়। এতে নিজের স্ট্রেসটা চারপাশে ছড়িয়ে দিচ্ছেন আপনি।

১৩) জীবন উপভোগ না করা

সবকিছু নিয়ে এতো দুশ্চিন্তায় আছেন যে কাজের মাঝে জীবনের কথা একবারও ভাবছেন না আপনি। এতে স্ট্রেস আরও বেশি বেড়ে যাবে। সময় বের করুন। জীবনটা আপনারই। উপভোগ করুন।

তথ্যসুত্র: 13 Stress-Inducing Habits and How to Avoid Them, PopSugar

5 stress-inducing habits to stop right now!, morethanmedication.ca

Habits — good and bad — stick when you’re stressed

7 Things Calm People Do Differently






মন্তব্য চালু নেই