মেইন ম্যেনু

যে ৮টি লক্ষণ দেখে বুঝবেন জীবনেও আপনার পক্ষে সফল হওয়া সম্ভব নয়

জীবনে অর্থ, প্রতিষ্ঠা, প্রতিপত্তি যাঁরা অর্জন করতে পারেন, সামাজিক মানদণ্ডে তাঁদেরই বলা হয় সফল মানুষ। সাফল্য কমবেশি সকলেরই জীবনে আকাঙ্ক্ষিত। কিন্তু সেই আকাঙ্ক্ষা পূরণ হয় খুব অল্প মানুষেরই জীবনে। আপনি নিজে কি আপনার জীবনে পরিগণিত হবেন একজন ‘সফল’ মানুষ হিসেবে? ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ ইকোনমিকস অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট সম্প্রতি একটি গবেষণাপত্রে ৭টি বিশেষ লক্ষণ নির্দেশ করেছে, যেগুলি কোনও মানুষের মধ্যে দেখা গেলে মোটামুটি নিশ্চিতভাবে বলা যায় যে, সেই মানুষটির পক্ষে জীবনে সফল হওয়া সম্ভব নয়। কী সেই লক্ষণগুলি? আসুন, জেনে নিই—

১। আপনি ফেসবুকে মাত্রাতিরিক্ত সময় ব্যয় করেন: ফেসবুকে অনেক কাজের কাজ করা যায় ঠিকই, কিন্তু আপনি কি ঠিক ‘কাজের কাজ’ করেন ফেসবুকে? সম্ভবত না। ‘অকাজে’ই ফেসবুকে আপনার বেশি সময় যায়। সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, বিশ্বের ৬২ শতাংশ সবচেয়ে সফল ব্যবসায়ী সারা সপ্তাহে ফেসবুকে ৬ ঘন্টার বেশি সময় ব্যয় করেন না। কাজেই ফেসবুকে মাত্রাতিরিক্ত সময় ব্যয় করার অভ্যাস জীবনে অসাফল্যের দিকে ঠেলে দেয় আপনাকে।

২। আপনি একটানা কাজ করতে পারেন না: আপনি দিনে ৮-১০ ঘন্টা কাজ করছেন ঠিকই, কিন্তু আপনার সমস্যা হল আপনি একটানা কাজ করতে পারেন না। বারবার নানা কারণে আপনার কাজ থেকে আপনার মনোযোগচ্যুতি ঘটে। এর ফলে আপনার কাজের লক্ষ্যপূরণের পথে বাধা সৃষ্টি হয়। পরিণামে সাফল্যও দূরবর্তী হয়ে ওঠে আপনার থেকে।

৩। অবসর আপনার কাছে নিছক অবসরই: কাজ থেকে বাড়ি ফিরে আপনি কী করেন? টিফি খুলে সোফায় গা এলিয়ে দেন, কিংবা বিছানায় শুয়ে ম্যাগাজিনের পাতা ওল্টান? এটা সফল মানুষের লক্ষণ নয়। যাঁরা সফল মানুষ তাঁরা তাঁদের অবসর সময়েও তাঁদের কাজ নিয়ে ভাবনাচিন্তা করেন, পরিকল্পনা করেন তাঁদের ভবিষ্যৎ পদক্ষেপ নিয়ে।

৪। আপনার দক্ষতা কম: এটা মেনে নেওয়া কষ্টকর। কিন্তু এমনটা যদি হয়, তাহলে আপনার পক্ষে সফল হওয়া কঠিন। কীভাবে বুঝবেন যে, আপনার মধ্যে দক্ষতার অভাব রয়েছে? প্রচুর পরিশ্রমের পরেও অভীষ্ট ফললাভ যদি আপনি না করতে পারেন, তাহলে, দুঃখজনকভাবে বলতেই হয়, আপনার মধ্যে দক্ষতার অভাব রয়েছে।

৫। আপনি খুব সহজেই হাল ছেড়ে দেন: জীবনে এগিয়ে যাওয়ার পথে বাধা আসবেই। কিন্তু আপনি যদি দৃঢ় মনোভাবের সঙ্গে সেই অবস্থার মোকাবিলা করতে না পারেন, এবং অবস্থার কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করেন, তাহলে জীবনে আপনার সফল হওয়ার সম্ভাবনা কম।

৬। আপনি সুদূর ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করতে পারেন না: আপনার সাফল্য আপনার বর্তমান সময়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। আপনার ভবিষ্যতকেও এর অন্তর্ভুক্ত করে নিতে হবে। এখন থেকেই যদি সেই ভবিষ্যতের জন্য পরিকল্পনা করতে না পারেন, তাহলে সেটা আপনার জীবনে সফল হওয়ার পথে বড় প্রতিবন্ধকতা।

৭। আপনি ঝুঁকি নিতে ভয় পান: ইংরেজিতে যাকে বলে ক্যালকুলেটেড রিস্ক, অর্থাৎ পরিকল্পিত ঝুঁকি, তা নিতে যদি আপনার বুক কাঁপে তাহলে জীবনে আপনার পক্ষে সফল হওয়াও কঠিন। পরিকল্পিত ও সুচিন্তিত ঝুঁকি নেওয়ার ক্ষমতা সফল মানুষদের লক্ষণ।

৮। আপনি উপযুক্ত সুযোগকে কাজে লাগাতে পারেন না: সঠিক সুযোগকে চিনে নেওয়া এবং সেই সুযোগকে কাজে লাগাতে পারা সফল মানুষদের চরিত্র। আপনাকেও সেই সুযোগের অপেক্ষায় থাকতে পারে, এবং সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে হবে। নতুবা সাফল্য আপনার করতলগত হওয়া মুশকিল। -এবেলা






মন্তব্য চালু নেই