মেইন ম্যেনু

যোগরাজপুরে এন পি কে গুটি প্রয়োগ প্রযুক্তি এর শস্য কর্তন ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

কৃষি উৎপাদনশীলতা উন্নয়ন ত্বরান্বিতকরণ প্রকল্প (আপি-আইএফডিসি) এর আয়োজনে যোগরাজপুরে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল এনপিকে গুটি প্রয়োগ প্রযুক্তি এর শস্য কর্তন ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠান। ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো: রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আপি-আইএফডিসি প্রকল্পের ফার্মিং সিস্টেম স্পোশালিষ্ট ড:মো: বদিরুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো: আমজাদ হোসেন, ০৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো: মফিজুল ইসলাম ও উপ-সহকারী কৃষি অফিসার কিরন্ময় সরকার,শওকত হায়দার,।

প্রকল্পের ফার্মিং সিস্টেম স্পোশালিষ্ট বলেন, গুটি সার ব্যবহার ফলন বৃদ্ধির পাশাপাশি পরিবেশ সুরক্ষায় চমৎকার কাজ করে।তিনি কৃষকদেরকে ভবিষ্যতে এ সারের বহুল ব্যবহার করতে আহ্বান জানান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা কৃষি অফিসার বলেন মাটির স্বাস্থ্য রক্ষা করতে রাসায়নিক সারের ব্যবহার ধীরে ধীরে কমিয়ে সবুজ সার, জৈব সার, কম্পোস্ট ব্যবহার করতে হবে যাতে নিরাপদ ফসল উৎপাদনের পাশাপাশি ফসলের উৎপাদন ব্যয়ও কমে আসবে। কৃষি কর্মকর্তা আরও বলেন, ধানের বাজার মূল্য উৎপাদন ব্যয় থেকে কম হওয়ায় বিকল্প হিসেবে ধান ক্ষেতে আমচাষ, আইল চওড়া করে কলা ও সবজি চাষ করতে হবে। এতে শস্য বহুমুখীকরনের পাশাপাশি উচ্চ মূল্যও পাওয়া যাবে।

সভাপতি তার সমাপনি ভাষনে বলেন কৃষি বান্ধব সরকার কৃষকদের জন্য নানা সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা করেছেন ফলে কৃষক এখন আগের থেকে অনেক বেশী সম্মানজনক ও ভালো অবস্থায় আছে এবং যোগরাজপুর এলাকাকে তিনি সদর উপজেলার কৃষি গবেষণা ও সম্প্রসারণ এর প্রাণকেন্দ্র হিসেবে আখ্যায়িত করেন ও কৃষকদের ধন্যবাদ দেন আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি গ্রহন ও সম্প্রসারণের জন্য। তিনি প্রকল্প কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানান এ ধরনের কর্মসূচী ইউনিয়নের অন্যান্য এলাকায় সম্প্রসারনের জন্য।

কৃষক মো: আব্দুল জব্বারের ক্ষেতে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানটি ফ্যাসিলিটেট করেন আপি-আইএফডিসি প্রকল্পের ফিল্ড মনিটরিং অফিসার মো: হাবিবুর রহমান, জনাব অমল কুমার ব্যানাজী, আনিছুর রহমান,কামরুল হাসান, শেখ হাসান রেজা, সুমন সরকার, নীলকন্ঠ সরকার, প্রতাপকুমার পাল সহ অনেক উপ-সহকারী কৃষি অফিসার। অনুষ্ঠানে প্রায় ১২০ জন কৃষক উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই