মেইন ম্যেনু

যোগ্যতায় নয়, ভিসি হয়েছেন আ.লীগ করার কারণেই

আপনি নিজের যোগ্যতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হননি। আপনি আওয়ামী লীগ করার জন্য ভিসি হয়েছেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রাখার কঠোর সমালোচনা করে উপাচার্যের উদ্দেশে এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য ও মহানগর সভাপতি সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

বুধবার দুপুর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘জেল হত্যা দিবস’ উপলক্ষে ছাত্রলীগের আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যখন যুবসমাজকে চাকরির ব্যবস্থা করে বেকারত্বের সমস্যা কমিয়ে আনার চেষ্টা করছেন তখন বিশ্ববিদ্যালয়ে শতশত পদ শূন্য থাকার পরও নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ করে রেখেছেন। কিন্তু আপনারা যে আজ ভিসি, প্রো-ভিসি হয়েছেন তা আওয়ামী লীগ করার কারণে। আজ আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাকর্মীরা চাকরি পাচ্ছে না। অথচ যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও আপনারা স্বচ্ছতার কথা বলে কোনো নিয়োগ দিচ্ছেন না।’

তিনি আরও বলেন, ‘ক্যাম্পাসে এখন আর জামায়াত-বিএনপি স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিরা নেই। তারা এখন মাঝেমাঝে দু’একটা ককটেল ফুটিয়ে নিজেদের আওয়াজ দেয়। রাজশাহীর মহানগর আওয়ামী লীগ আছে বলেই বিরোধী শক্তিরা ক্যাম্পাসে কিছু করতে পারছে না। তাই প্রশাসন আছে খুব আরামে। আজকে যে ক্যাম্পাস ভালোভাবে চালাচ্ছেন তা মনে করছেন আপনাদের দক্ষতা? না। মহানগর আওয়ামী লীগ যদি ইশারা দেয় আপনাদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে উল্টে দিতে ২৪ ঘণ্টার বেশি সময় লাগবে না। কিন্তু আমাদের নেতাকর্মীরা তা করবে না।’

লিটন আরও বলেন, ‘রাজনীতিতে শেষ বলে কিছু নেই। তাই আমাদের অনেক কিছুই সহ্য করতে হয়। আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন বলতে যে দু’জনকে বোঝায় তারা হলেন ভিসি-প্রোভিসি। তারা যদি আমাদের ত্যাগী নেতাদের চাকরি না দেয় তাহলে তাদের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ মানুষ ঘৃণা করবে।’

রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লবের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন- মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, রাবি ছাত্রলীগের সাভাপতি মিজানুর রহমান রানা প্রমুখ। এসময় এসময় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে ‘জেল হত্যা দিবস’ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে ছাত্রলীগের আয়োজনে আলোকচিত্র প্রদর্শনী ও রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।






মন্তব্য চালু নেই