মেইন ম্যেনু

‘যৌন দৃশ্যে ভয় পেয়েছিলাম’

‘গ্রেট গ্র্যান্ড মস্তি’র ট্রেইলর প্রকাশের পরই’ ছবিটির বিরুদ্ধে যৌনতা,অশ্লীলতার অভিযোগ উঠেছে। এখন নতুন খবর শোনা যাচ্ছে যে, সিনেমার চিত্রনাট্য পড়ে অভিনয়ে রাজি হলেও পরে বেঁকে বসেন সিনেমার প্রধান নায়িকা ঊর্বশী রাউতেলা।

উর্বশী নাকি বলেন, সিনেমায় এমন কিছু দৃশ্য আছে যা তার পক্ষে করা সম্ভব নয়। এরপরেই উর্বশির মন গলাতে ময়দানে নামেন পরিচালক ইন্দ্র কুমার। পরিচালক বোঝান, চরিত্রের প্রয়োজনে এমন দৃশ্যে অভিনয় করাটা অসুবিধা হবে না। তিন মাস বোঝানোর পর অবশেষে রাজি হন নায়িকা উর্বশী।

ইন্দ্র কুমার দারুণ খুশি উর্বশির কাজে। মস্তি সিনেমার পরিচালক বলছেন, উর্বশি নিজের সেরাটা দিয়েছে। অনেককে অডিশনে দেখার পর প্রধান চরিত্রে উর্বশিকে বেছে নেওয়া হয় বলে জানান ইন্দ্র কুমার।

লেট দ্য মস্তি এগেইন। হ্যাঁ, আবারও গ্রেটেস্ট মস্তি করতে চলেছে রীতেশ দেশমুখ, আফতাব শিবদাসানি ও বিবেক ওবেরয়। ক দিন আগে মুক্তি পায় গ্রেট গ্রান্ড মস্তির ট্রেলর ও ফার্স্ট লুক। রীতেশ ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে ছবির পোস্টার পোস্ট করেন। ইন্দ্র কুমার পরিচালিত এই ছবি মুক্তি পাবে ২২শে জুলাই। তার আগে ১৬ জুন প্রকাশিত হয় ছবির ট্রেলার।

হিন্দি সিনে দুনিয়ায় ফার্স্ট অ্যাডাল্ট ছবি মস্তি রীতিমত সাড়া ফেলে দিয়েছিল ‘মস্তি’। ২০০৪ সালে এই ছবির সংলাপ থেকে দৃশ্যে সবই হাসতে হাসতে চোখে জল এনে দিয়েছিল দর্শকদের। তিনজন বিবাহিত পুরুষের জীবনে একটু স্পাইসির জন্য এক্সট্রা ম্যারিটিয়াল সম্পর্ক তাঁদের কোথায় নিয়ে যায় সেই ছিল ছবির বিষয়বস্তু।

এরপর আসে মস্তি ছবির সিক্যুয়েল ‘গ্র্যান্ড মস্তি’। এই ছবি আগের থেকে হয়ে ওঠে আরও সাহসি। কমেডির এক ধরণ হিসাবে উঠে আসেও সেক্সও। এবার পালা গ্রেট গ্রান্ড মস্তির। স্পটলাইটে থাকছে উর্বশী রাউতেলা। মস্তি এবার হবে গ্রেট অ্যান্ড গ্র্যান্ড। ছবির প্রচারে বলা হচ্ছে ২২শে জুলাই ‘মস্তি কা ভূত সব পে চরেগা’।






মন্তব্য চালু নেই