মেইন ম্যেনু

রংপুরে এখনো চলছে ৪ পিস স্কুল অ্যান্ড কলেজ

সাম্প্রতিক সময়ে বিতর্কিত ইসলামি বক্তা ও পিস টিভির মালিক জাকির নায়েকের সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক বক্তব্য এবং তার এক অনুসারীর জঙ্গি সম্পৃক্ততার কারণে বাংলাদেশ সরকার টেলিভিশন চ্যানেল পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দিয়েছে।

দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্ধ হয়ে গেছে পিস টিভির লোগো (মেনাগ্রাম) সম্বলিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। কিন্তু ব্যতিক্রম চিত্র রংপুরে। এই বিভাগের চারটি আন্তর্জাতিক পিস স্কুল অ্যান্ড কলেজ এখনো চলছে যথারীতি।

এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোমলমতি শিশুদের ইংরেজি ও আরবি শিক্ষার নামে শিক্ষা দেয়া হচ্ছে সাম্প্রদায়িক উস্কানি বলে অভিযোগ রয়েছে। এমনকি শিশুদের জাকির নায়েকের মতো আদর্শিক বক্তা হতেও উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। তবে এসব বিষয় অস্বীকার করছেন শিক্ষকরা। তাদের দাবি, সুন্দর ও চরিত্রবান মানুষ গড়তেই কাজ করছেন তারা।

অন্যদিকে জেলা প্রশাসন বলছে, অনুমোদনবিহীন এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চলছে অবৈধভাবে। শিগগির ওই সব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে নিশ্চিত করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক প্রিয়সিন্ধু তালুকদার।

এদিকে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পিস টিভির লোগো ব্যবহার করে জামায়ত-শিবির ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন। এমনকি তাদের ফুলকুঁড়ি নামে সংগঠনের বেশ কয়েকজন সেখানে শিক্ষকতাও করছেন। ব্যাপারটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তারা।

শিক্ষা ও অপরাধ বিশ্লেষক অধ্যক্ষ খোন্দকার ফখরুল আনাম বেঞ্জুর মতে, এই প্রতিষ্ঠানগুলোর কারা অর্থ যোগানদাতা ও পরিচালনা করছেন দ্রুত সুষ্ঠু মনিটরিং করে সিদ্ধান্ত নেয়া উচিৎ।

রংপুর বিভাগের ৮ জেলার মধ্যে রংপুর, লালমনিরহাট, দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলায় জামায়াত-শিবির পরিচালিত ৪টি পিস স্কুলে প্রায় দেড় হাজার কোমলমতি শিক্ষার্থী শিক্ষা গ্রহণ করছে বলে জানা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই