মেইন ম্যেনু

রংপুরে গ্যাস সরবরাহে আহ্বান এরশাদের

রংপুরের উন্নয়নে গ্যাস সরবরাহের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

রোববার রাজধানীর অফিসার্স ক্লাব মিলনায়তনে রংপুর বিভাগ সাংবাদিক সমিতির অভিষেক অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান।

এরশাদ বলেন, ‘সরকারের কাছে দাবি, আমরা গ্যাস চাই। আমরা কারো কাছে হাত পাততে চাই না, আমরা গোটা বাংলাদেশকে খাওয়াই। তাই আর পশ্চাৎপদ থাকতে চাই না। সেকারণে সংগ্রাম করতে হবে, যেন আমরা সবার সমতুল্য হতে পারি।’

রংপুর অঞ্চলে শিক্ষা বিস্তারে আরও বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনেরও দাবি জানান এরশাদ।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, ‘রংপুর অঞ্চল আগে অনেক অনুন্নত ছিল। এখন কিছুটা উন্নত হয়েছে। আরো উন্নয়নের জন্য আমাদেন সকলের প্রচেষ্টা দরকার। এতে আমার কোনো ধরনের সহযোগিতা লাগলে আমি তা করতে প্রস্তুত আছি।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘রংপুর বিভাগের উন্নয়নের জন্য ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের জোড়ালো ভূমিকা রাখতে হবে। তবে রংপুর বিভাগের উন্নয়নের জন্য আমি সব সময় প্রস্তুত আছি।’

পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, ‘রংপুরের উন্নয়ন না হলে বাংলাদেশ কখনোই উন্নত দেশে পরিণত হতে পারবে না।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘রংপুরের মানুষের মধ্যে রাজনৈতিক মতভেদ নেই। যার দল তার তার, রংপুর বিভাগের উন্নয়নে অংশগ্রহণ চাই সবার। রংপুর পিছিয়ে থাকলে সরকারের ভীষণ-২০২১ বাস্তবায়ন হবে না।’

রংপুর বিভাগের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুনজর আছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘চাইলেই প্রধানমন্ত্রী রংপুরের জন্য বরাদ্দ দিচ্ছেন।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘কুড়িগ্রামকে এক সময় ‘মঙ্গা’ বলে অবহেলা করা হলেও বর্তমানে সব থেকে ভালো অবস্থানে আছে এ জেলা।’

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার রংপুর অঞ্চলের মানুষের জন্য সব সময় কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রংপুর বিভাগ সাংবাদিক সমিতি, আরডিজেএর সভাপতি কেরামত উল্লাহ বিপ্লব। সঞ্চালনা করেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক গাউসুল আজম বিপু। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী জিএম কাদের, জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু, সাবেক সচিব আবু আলম শহিদ খান, বিজি প্রেসের মহাপরিচালক একেএম মানজুরুল হক, কুয়েতস্থ প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংগঠনের সভাপতি বাবলু, গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জের সমাজসেবক সিফাত হোসেন শাওন, আরডিজেএর সহসভাপতি জহুরুল ইসলাম টুকু, সাবেক সভাপতি জাকারিয়া মুক্তা, মুফদি আহমেদসহ কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও সংগঠনের সদস্যরা।

অনুষ্ঠান শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে গান পরিবেশন করেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গাসহ রংপুর অঞ্চলের শিল্পীরা।






মন্তব্য চালু নেই