মেইন ম্যেনু

রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল!

ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য তারকারা তো কত কিছুই করেন। তাই বলে রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল! আশ্চর্য হলেও সত্য, মুখের বলিরেখা দূর করার জন্য রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল করলেন ব্রিটিশ টিভি ব্যক্তিত্ব ফার্নে ম্যাকক্যান। এ ধরনের ফেসিয়ালকে ভ্যাম্পায়ার ফেসিয়াল বলা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় টিভি ব্যক্তিত্ব ও অভিনেত্রী কিম কার্দাশিয়ান সর্বপ্রথম রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল করে খবরের শিরোনাম হয়েছিলেন। এবার তাকে অনুসরণ করে খবরের শিরোনাম হলেন ম্যাকক্যান। নিজের রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল করার অনুভূতিও ব্যক্ত করেছেন এই রিয়েলেটি শো তারকা।

দি সান পত্রিকার এক খবরে বলা হয়েছে, কিম কার্দাশিয়ানের ফ্যাশন এবং রুচি দেখে অনেকেই মুগ্ধ। ২০১৩ সালে কিম প্রথম রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল করে ক্যামেরার সামনে হাজির হয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, ত্বকের নমনীয়তা বাড়ানোর জন্য নিয়মিত জাপানিজ মাশরুম ফেসিয়ালও করান মার্কিন এই টিভি তারকা। কিমকে অনুসরণ করে এবার নিজের রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল করলেন ব্রিটিশ টিভি তারকা ফার্নে ম্যাকক্যান। অদ্ভূত এই ফেসিয়াল করাতে ম্যাকক্যানের ব্যক্তিগত চিকিৎসকের কোনো বাধা ছিল না। এই ধরনের ফেসিয়ালে নাকি মুখের বলিরেখা দূর হয়-এমনটাই মনে করেন তিনি।

ম্যাকক্যানের ভাষ্য, রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল করার অনুভূতিটা খুবই ভালো। মুখে রক্ত দেখে বিষ্ময়কর লাগতে পারে। তবে নিজেকে বেশ আরামবোধ মনে হয়। রক্ত দিয়ে ফেসিয়াল করার আরেকটা উপকার রয়েছে। তাহলো নিজেকে তেজী ও প্রফুল্ল লাগে। এজন্যই আমি কিমকে অনুসরণ করে এ ধরনের ফেসিয়াল করেছি।

ম্যাকক্যান মনে করেন, বিশ্বের রূপ সচেতন নারীরা বিউটি কুইন কিমকে অনুসরণ করে। শারীরিক সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য কিমের সব আইডিয়াই চমৎকার। তিনি আসলেই বিউটি আইডল।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই