মেইন ম্যেনু

রবীন্দ্রনাথের কাব্য অনুবাদ করে বিপাকে চীনা প্রকাশক

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘স্ট্রে বার্ডস’ কবিতা সমগ্রের অনুবাদ করে বিপাকে পড়েছেন এক চীনা প্রকাশক। কবিতায় অশ্লীল শব্দের ব্যবহার থাকায় তা চীনের সাহিত্য মহলে বিতর্ক সৃষ্টি করেছে। ফলে বাধ্য হয়ে অনুবাদটি বাজার থেকে তুলে নেন প্রকাশক।

নোবেলজয়ী বাঙালি কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘স্ট্রে বার্ডস’ কবিতা সংকলনের অনুবাদ করেছিলেন চীনা ঔপন্যাসিক ফেং তাং। এই অনুবাদের প্রকাশক সোমবার বলেছেন, সাহিত্য মহলে অতিমাত্রায় বিতর্কের কারণে তারা এটাকে বাজার থেকে তুলে নিচ্ছেন।

তবে অনুবাদক ফেং তার অনুবাদের স্বপক্ষে বলেছেন, তার আগে যারা অনুবাদ করেছেন তাতে কৌশলগত অনেক ঘাঁটতি ছিল। বরং তার অনুবাদেই যথার্থ ভাব প্রকাশ পেয়েছে। কিন্তু চীনা গণমাধ্যম ফেংয়ের অনুবাদকে সমালোচনা করে বলেছে, এই অনুবাদ আগেরগুলো থেকে পুরোপুরি ভিন্ন এবং অশ্লীল।

সমালোচকদের অভিযোগ অনুবাদক এখানে এমন অনেক অশোভন এবং কুশ্রী শব্দ ব্যবহার করেছেন যা অপ্রয়োজনীয়। তবে ফেং বলেছেন, এই ধরনের শব্দের ব্যবহারের কারণেই কবিতাকে একটা ভিন্ন আঙ্গিকে উপস্থাপন করা সম্ভব হয়েছে।

উল্লেখ্য, ফেং তাং রবীন্দ্রনাথের কবিতার একটি ইংরেজি অনুবাদ থেকে চীনা অনুবাদ করেন। তবে মূল কবিতাগুলো লেখা হয়েছিল বাংলায়।






মন্তব্য চালু নেই