মেইন ম্যেনু

রমজানে স্কুল সময়সূচির পরিবর্তন হবে না

রমজান উপলক্ষে স্কুলের সময়সূচিতে কোনো ধরনের পরিবর্তন আনা হয়নি। বছরের শুরুতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে যে ক্যালেন্ডার করা হয়, ঠিক সে অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানগুলো পরিচালিত হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

বুধবার বিকেল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে ডিআরইউ আয়োজিত ‘পিএসসি-জেএসসি-২০১৪ পরীক্ষায় কৃতী শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা গত বছরও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ক্যালেন্ডার অনুযায়ীই শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করেছিলাম। এবারও তার কোনো ব্যতিক্রম ঘটবে না। কেননা হরতাল-অবরোধের কারণে শিক্ষাব্যবস্থায় যে ক্ষতি হয়েছিল, তার প্রভাব আমরা কাটিয়ে উঠেছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘পিএসসি পরীক্ষা নিয়ে অনেকেই আমার সমালোচনা করে বলেছেন, এই পদ্ধতি চালু করে আমি নাকি শিক্ষার্থীদের ওপর অতিরিক্ত বোঝা চাপিয়ে দিয়েছি। কিন্তু আমি বলতে চাই, এর ফলে শিক্ষার্থীদের ওপর কোনো চাপ বাড়েনি। আগে পঞ্চম শ্রেণিতে বৃত্তি পরীক্ষা চালু ছিল। ওই সময় পঞ্চম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার পাশাপাশি অনেক শিক্ষার্থী বৃত্তি পরীক্ষায়ও অংশগ্রহণ করত। এর ফলে শিক্ষার্থীদের দুটি পরীক্ষা দিতে হতো। কিন্তু এখন একটি পরীক্ষা দিতে হয় এবং এখানে যারা ভালো করে তাদের বৃত্তিও দেওয়া হয়। ছেলেমেয়েরা এখন একটি সার্টিফিকেট পেয়ে গর্বের সঙ্গে বলতে পারে তারা একটি সার্টিফিকেট পেয়েছে।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, গতানুগতিক শিক্ষাব্যবস্থা দিয়ে একটি জাতি তার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে না। তাই আমরা শিক্ষাব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছি। বর্তমানে শিক্ষাব্যবস্থার যে মান রয়েছে তা আমাদের ধরে রাখতে হবে এবং রক্ষা করতে হবে। বিশ্বমানের শিক্ষাব্যবস্থার জন্য আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। আমাদের ছেলেমেয়েদের যেন শুধু জ্ঞানে মাথা ভর্তি না হয়। তারা যেন এ জ্ঞানকে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারে, সে দিকেও আমাদের নজর দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে পিএসসি ও জেএসসি-২০১৪ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ডিআরইউর সদস্যদের কৃতী সন্তানদের মধ্যে পিএসসিতে নওশিন আনজুম এশা ও নওশিন আনবার এনাসহ ২৫ জন এবং জেএসসিতে কান্তাময়ী স্নেহাসহ ১৭ জন, মোট ৪২ জনকে সম্মাননা ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও বৃত্তি প্রদান করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সহযোগিতাকারী প্রতিষ্ঠান ঢাকা টাইমস টোয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক আরিফুর রহমান, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেন, অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক ফেরদৌস মোবারক প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই