মেইন ম্যেনু

রহস্যময় দ্বীপ, দানব কঙ্কাল, ফিরে আসছে আতঙ্ক…

জন্ম ১৯৩৩। ভারত মহাসাগরের এক রহস্যময় দ্বীপে থাকত সে। এক অভিযাত্রী দল তাকে ধরে নিয়ে আসে আমেরিকায়। নিউ ইয়র্ক শহরে দাপিয়ে বেড়ায় সে। পৃথিবীর সর্বকালের সেরা আতঙ্কের তালিকায় জায়গা করে নেয়। দানব গোরিলা কং-কে ‘কিং কং’ হিসেবেই চিনেছে বিশ্ব।

সেই সাদা-কালো যুগ থেকে আজকের এইচডি এরা পর্যন্ত কংয়ের জনপ্রিয়তায় ভাগ বসাতে পারেনি কোনও মনস্টারই। সে একবেমাদ্বিতীয়ম হয়ে বিরাজ করেছে দানবকুলে।

কং-কে বার বার ফিরিয়ে আনা হয়েছে রুপোলি পর্দায়। কখনও সে একা, কখনও বা তার সঙ্গী হয়েছে জাপানি জলদানব গডজিলা। যে রূপেই হোক, কং-কে ভাল না বেসে পারেনি দর্শককুল। এমনকী, ১৯৩৩-এর ছবির নায়িকা পরমাসুন্দরী ফে রে অকপটে জানিয়েছিলেন— কং-ই তাঁর সবথেকে পছন্দের নায়ক।

১৯৩৩ থেকে ২০১৭, এই দীর্ঘ সময়ে পার করে কংয়ের বিশাল অবয়ব আবার ফুটে উঠতে চলেছে পর্দায়। ২০১৭-এ মুক্তি পেতে চলেছে কংয়ের নতুন ছবি ‘কং: স্কাল আইল্যান্ড’। ১৯৭০ সালের পটভূমিকায় এবারে অযাডভেঞ্চার প্রশান্ত মহাসাগরের একটি দ্বীপে। সোহময় পটভূমি লহমায় কী করে নরকে পরিণত হতে পারে, তা এই ছবিতে দেখিয়েছেন পরিচালক জর্ডন ভোট-রবার্টস। এই ছবিতে অভিনয় করছেন স্যামুয়েল এল জ্যাকসন, টম হিডেলসন, ব্রি লারসনের মতো তারকারা। সবার উপরে থাকছে কং, কিং কং।






মন্তব্য চালু নেই