মেইন ম্যেনু

রহস্যময় প্রাণীর চামড়া !

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরণের রহস্যময়ী জিনিসের আবির্ভাব দেখা যায় লন্ডনের পার্কে। কিন্তু এ বছর খুবই জঘন্য একটি জিনিস পার্কে পাওয়া যায়। চামড়ার ন্যায় দেখতে ঘাসের উপর পরে থাকা সেই বস্তুটি নিয়ে বিভিন্ন কৌতূহলের সৃষ্টি হয়েছে। খবর- মেট্রো।

এটা কি পাখির চামড়া? সমতল কোন বস্তু? কোন প্রাণীর সম্পূর্ণ শরীরের ত্বক বিশেষ? না কি কোন কাল যাদুর জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে? এসব প্রশ্নে এখন সে এলাকা সয়লাব।

ষ্টক নিউইংটন শহরের ক্লিসল্ড পার্কে জোসে ওয়েলস নামের একজন ব্যক্তি যখন সকালের আবহাওয়ায় হাঁটার জন্য এসেছিলেন, তখন তিনি এই চামড়ার ন্যায় বস্তুটি দেখতে পায়।

তিনি বলেন, “এটা কোন ছাগলের চামড়া নয়। কারন, চামড়ার সাথে এখনও মাংস সংযুক্ত রয়েছে”। সংশ্লিষ্ট বাসিন্দারা প্রথমে একে ছাগলের চামড়া বলে মনে করেন। কারন, সেখানে আশেপাশে ছাগল পালন করা হয়। কিন্তু, পার্কের কর্মীরা নিশ্চিত করেন যে, সেখানের সকল পশু নিরাপদে আছে।

পরবর্তীতে দেখা যায়, চামড়াটি ছাগলের চামড়া নয়। অন্যান্য কিছু বাসিন্দারা বলেছিলেন, এটা কুকুরের চামড়া হতে পারে। তবে এটা কোন বিড়ালের চামড়া নয়। আবার অনেকেই বলছেন, পার্কে বিচরণ করার জন্য কোন হরিণ এসে থাকলে, এটি তার চামড়া।

কর্তৃপক্ষ এখন চামড়াটি সরিয়ে নিয়েছে। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত চামড়াটি কোন প্রাণীর তা সম্পর্কে নির্দিষ্ট কোন তথ্য পাওয়া যায় নি। যারা পার্কটি ব্যবহার করেন, তারা মনে করছে হয়ত এই চামড়া কোন ‘কাল যাদু’ এর অংশ। তারা এ সম্পর্কে অনেক উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তবে হয়ত তা কুসংস্কার ছাড়া আর কিছু নয়।






মন্তব্য চালু নেই