মেইন ম্যেনু

রাগ কমানোর নতুন কৌশল!

সবসময়ই রেগে থাকেন, এমন ধরণের লোকের দেখা এই দুনিয়ায় প্রায়ই পাওয়া যায়। আর হুট করেই অনেক রেগে যান, এমন লোকের সংখ্যাও নেহাতই কম নয়। রাগ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টাও মানুষ কম করে না। নানা রকম ধ্যান করার মাধ্যমেও অনেকে নিজের রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা চালান। এ ধরণের মানুষদের জন্য একটু ভিন্ন ধরণের একটা উপায় বাতলে দিয়েছেন নিউ সাউথ ওয়েলসের অধ্যাপক ড. থমাস ডেনসন। ডানহাতি মানুষরা যদি টানা দুই সপ্তাহ তাদের বাম হাত দিয়ে কম্পিউটারের মাউস ব্যবহার, চায়ে চিনি গোলানো বা দরজা খোলার অভ্যাস করেন তাহলে তারা অনেক সফলভাবে রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে ও বিনয়ী হয়ে উঠতে পারবেন বলে এক গবেষণায় দাবি করেছেন ড. ডেনসন। আর বামহাতি মানুষদের ব্যবহার করতে হবে তাদের ডানহাত।

সম্প্রতি ড. ডেনসনের এই গবেষণা প্রকাশিত হয়েছে সাইকোলজিক্যাল সায়েন্সের জার্নালে। তাঁর মতে আত্মনিয়ন্ত্রণের মাধ্যমেই মানুষ নিজের আবেগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে। তিনি বলেছেন, ‘মানুষের সাধারণ অভ্যাস হলো নিজেদের শক্তিশালী হাতটার ব্যবহার করা। কিন্তু অপর হাতটা দিয়ে মাউস ব্যবহার, কফিতে চিনি মেশানো বা দরজা খোলা ইত্যাদি ধরণের কাজগুলো করার মাধ্যমে মানুষ আত্ম নিয়ন্ত্রণের অনুশীলন করতে পারে।’

অপরাধবিজ্ঞানী ও সামাজিক বিজ্ঞানীরা অনেকদিন ধরেই বিশ্বাস করেন যে, যাদের আত্ম নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা কম, সেই ধরণের মানুষ সুযোগ পেলে সহিংস অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। এই তথ্য জানিয়ে ড. ডেনসন বলেছেন, ‘একধরণের ঝোঁকের বশে এরকম কাজগুলো করা হয়।’ গত ১০ বছর ধরে মনোবিজ্ঞানীরা আত্ম নিয়ন্ত্রণ করার নতুন উপায় খোঁজার জন্য গবেষণা করছেন। তার তাঁরা দেখেছেন যে, আগ্রাসনের মনোভাব খুবই গভীরভাবে সম্পর্কিত আত্মনিয়ন্ত্রণ করতে পারা না পারার সঙ্গে। গবেষণায় আরও দেখা গেছে যে, যখন মানুষকে কিছু সময়ের জন্য নিজেদের আবেগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে বাধ্য করার হয়, তারপর তারা আরও বেশি আগ্রাসী আচরণ করে। ড. ডেনসন বলেছেন, ‘আমার কাছে, এই গবেষণার সবচেয়ে আকর্ষণীয় তথ্য হলো, যদি আপনি রাগী মানুষকে তাদের আত্ম নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা উন্নয়নের সুযোগ দেন, তাহলে তাদের আগ্রাসী মনোভাব অনেক কম হয়ে আসে।’

তবে ব্যাপারটা এরকমও নয় যে, রাগী মানুষরা নিজেদের রাগ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা একেবারেই করেন না। মুশকিলটা হচ্ছে, তাদের অনেকেই এটা ভালোমতো করার উপায়টা সনাক্ত করতে পারেন না। ফলে যারা নিজেদের রাগ বা সহিংস আচরণ নিয়ন্ত্রণ করতে চান, তারা এই নতুন কৌশলগুলো অনুসরণ করলে ফল পেতেও পারেন বলে বিশ্বাস ড. ডেনসন ও তাঁর গবেষক সহকর্মীদের।






মন্তব্য চালু নেই