মেইন ম্যেনু

রাজধানীতে ৪ অজ্ঞান ব্যক্তি উদ্ধার

রাজধানীতে বিভিন্ন স্থানে অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে সর্বশান্ত হয়েছেন কয়েকজন। তাদেরকে বিভিন্ন জায়গা থেকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার সকালে ফার্মগেট থেকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করা হয় আব্দুল হাকিম (৬০) নামের এক ব্যক্তিকে। জানা গেছে, তিনি কাস্টমসের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। তার বাসা মিরপুর ১২ তে। তার পরিবারের লোকজন জানিয়েছে তার কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে অজ্ঞানপার্টি।

আব্দুল হাকিমের মেয়েজামাই ইয়াসির আরাফাত জানান, সকালে ইউনাইটেড বাসে করে তিনি মিরপুর থেকে আরামবাগ যাচ্ছিলেন। ফার্মগেটে অজ্ঞান অবস্থায় বাসে পড়ে থাকতে দেখে পরিবারের লোকজনকে খবর দেন অন্য বাসযাত্রীরা। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে আসা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে ভর্তি রয়েছেন।

আরেকটি ঘটনা ঘটেছে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা এলাকায়। বিশ্ব ইজতেমার শেষপ্রান্তের টঙ্গী এলাকায় ভোরের দিকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় ইজতেমায় আগত মোতলেব আলী (৭০) ও সেলিমকে (২৫)। মোতলেব আলীর বাড়ি নেত্রকোনা সদরের মহাআটি বলে জানা গেলেও সেলিমের ঠিকানা জানা যায়নি।

ঢাকায় অবস্থানকারী মোতলেবের ভাগিনা কানন জানান, টঙ্গী এলাকায় রাস্তারপাশে তার মামাকে পড়ে থাকতে দেখে তার ব্যাগ হাতড়ে ফোন নম্বর পেয়ে লোকজন তাকে খবর দেয়। পরে তিনি তাদের উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে আসেন। এখন তারাও ঢামেকে ভর্তি রয়েছেন।

এদিকে, সকালে শ্যামপুর ফায়ার সার্ভিসের পাশ থেকে ১৫ বছরের এক কিশোরকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করেছে শ্যামপুর থানা পুলিশ। কিশোরের নাম-পরিচয় কিছুই জানা যায়নি। তার পরনে ছিল কালো ট্রাউজার, লাল-কালো ফুল হাতা গেঞ্জি।

শ্যামপুর থানার এএসআই আনোয়ার হোসেন তাকে উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি দেন। তবে অজ্ঞাত এ কিশোর অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছে কি না তা জানা যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই