মেইন ম্যেনু

রাজন-রাকিবের মতো চাঞ্চল্যকর মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ

সিলেটের শিশু সামিউল আলম রাজন এবং খুলনার রাকিব হাওলাদার হত্যা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি হওয়ায় খুশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই এ মামলাগুলোর মতো বাকি চাঞ্চল্যকর মামলাগুলোও দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এক অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে এ নির্দেশনা দেন।

গতকাল রোববার রাজন ও রাকিব হত্যা মামলার রায়ের বিষয়ে বৈঠকে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, ‘এ দুই মামলার বিচার দ্রুত নিষ্পত্তি হয়েছে। যা আমাদের জন্য একটি ভালো উদাহারণ হয়ে রইলো।’

এর জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আইনমন্ত্রীকে বলেন, ‘এ ধরনের বাকি মামলাগুলোর প্রতিও নজর দেন। যাতে সেই মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি হয়।’

উল্লেখ্য, রাজন হত্যা মামলাটি চার মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করা হয়। যেখানে চারজনের মৃত্যুদণ্ড, একজনের যাবজ্জীবন, তিনজনের সাত বছর এবং দুইজনের এক বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে রাকিব হত্যা মামলায় দুইজনের মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। এই মামলাটি তিনমাসের মধ্যেই নিষ্পত্তি করা হয়।

এদিকে আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে হলে মেয়র পদের জন্য ৪০০ এবং কাউন্সিলর পদের জন্য ৫০ জন ভোটারের সমর্থনযুক্ত তালিকা মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হবে। এই শর্ত রেখে নির্বাচন বিধিমালা সংশোধন করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

মন্ত্রিসভার বৈঠকে পৌরসভা অধ্যাদেশ অনুমোদনকালে এ বিষয়ে আলোচনায় কেউ কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থীর জন্য নূন্যতম সমর্থক না রাখার প্রতি মত প্রকাশ করেন। আবার অনেকে মেয়র প্রার্থীর জন্য ৪০০ এর পরিবর্তে তা ১০০ করার জন্য বলেন। আবার কেউ বলেন যা রাখা হয়েছে তাই ভালো।






মন্তব্য চালু নেই