মেইন ম্যেনু

রাজন হত্যার আরেক আসামী পাঁচ দিনের রিমান্ডে

চোর সন্দেহে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে শিশু সামিউল আলম রাজনকে হত্যার দায়ে গ্রেফতার ইসমাঈল হোসেন আবদুলসে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সিলেট মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-২ এর বিচারক ফারহানা ইয়াসমিন মঙ্গলবার সকালে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সিলেট পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ রহমতউল্লাহ  জানান, জালালাবাদ থানার ওসি (তদন্ত) আলমগীর হোসেন সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আদালত পাঁচ দিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে সোমবার এই হত্যাকাণ্ডের আরেক আসামি মুহিতকেও রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

গত বুধবার সিলেট নগরীর কুমারগাঁওয়ে শিশু সামিউল আলম রাজনকে (১৩) চুরির অপবাদ দিয়ে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে পৈশাচিক নির্যাতন চালানো হয়। একপর্যায়ে রাজন মারা গেলে তার লাশ গুম করার চেষ্টাকালে পুলিশের হাতে আটক হয় মুহিত আলম ও মামলার মূল হোতা কামরুল। পরে দেশ ছেড়ে সৌদি আরবে পালালে সেখানে কামরুলকে আটক করা হয়।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে এসএমপির জালালাবাদ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলায় মুহিত আলম (৩২) ও তার ভাই কামরুল ইসলাম (২৪), তাদের সহযোগী আলী হায়দার (৩৪) ও চৌকিদার ময়না মিয়াকে (৪৫) আসামি করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই