মেইন ম্যেনু

রাজশাহীতে স্বেচ্ছাসেবকদল সভাপতিসহ ২ জনকে কুপিয়ে হত্যা

রাজশাহী জেলার বাগমারায় স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ও নগরীর ভাটাপাড়া চণ্ডিপুর এলাকায় এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার ভোরে ওই নেতার লাশ পাওয়া যায় ও একই সময় যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহতরা হলেন- বাগমারা উপজেলার হামিরকুৎসা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আলতাব মাহমুদের (৩৬)। তিনি হামিরকুৎসা শাহপাড়া গ্রামের মৃত মজিবর শাহর ছেলে। অপর যুবকের নাম আপেল মাহমুদ হৃদয় (৩৩)। তিনি ভাটাপাড়া চণ্ডিপুর এলাকার বকুলের ছেলে।

বাগমারা থানার (ওসি, তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকদল নেতা আলতাব মাহমুদ সোমবার বিকেলে নিখোঁজ হন। হামিরকুৎসা বাজারে তার স্বর্ণের দোকান ছিল। মঙ্গলবার সকালে হামিরকুৎসা বাজারের পাশের একটি পুকুরে তার লাশ ভেসে উঠে। নিহতের গলাসহ শরীরে কাটা দাগ আছে। ঘটনাটি পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।

এদিকে, নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুর রহমান জানান, ভাটাপাড়া চণ্ডিপুর এলাকার বকুলের ছেলে আপেল মাহমুদ হৃদয়। মঙ্গলবার ভোরে দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। পরে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেন। আপেল মাহমুদ লক্ষীপুর মোড়ে ওষুধের দোকানের দালালির সঙ্গে জড়িত ছিলেন বলে জানান তিনি।

তার বিরুদ্ধে রাজপাড়া থানায় ৫টি মামলা রয়েছে। সে এলাকায় বখাটে হিসেবে পরিচিত। তার পরিবার দাবি করেছে, এলাকার আরিফ নামে এক যুবকের সঙ্গে তার বিরোধ ছিল। সেই বিরোধ থেকে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে। পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করছে।






মন্তব্য চালু নেই