মেইন ম্যেনু

রাজশাহীতে হত্যা মামলার আসামীসহ পুলিশের অভিযানে আটক ৫৩

সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী থেকে : রাজশাহীর পবায় হত্যা মামলার আসামীসহ মেট্রোপলিটন পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৫৩ জনকে আটক করেছে। বুধবার রাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

পবা থানার অফিসার্স ইনচার্জ শরিফুল ইসলাম ও রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র রাজপাড়া থানার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার ইফতে খায়ের আলম এ আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পবা থানা থেকে জানা গেছে, উপজেলার দর্শনপাড়া বাকশৈল গ্রামে দর্শনপাড়া গ্রামের তফিজুল ইসলামের ছেলে হাসান আলী (৩৫) কে হত্যার অভিযোগে ৬ জনকে এবং বিভিন্ন মামলায় আরো ৬জনকে আটক করা হয়। এছাড়াও রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র রাজপাড়া থানার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার ইফতে খায়ের আলম বলেন, মহানগরীর ৪টি থানা ও ডিবি পুলিশ মহানগরীর বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে ৪১জনকে আটক করা হয়।

এর মধ্যে বোয়ালিয়া মডেল থানা ১৮ জন, রাজপাড়া থানা ৬ জন, মতিহার থানা ১০ জন, শাহমখদুম থানা ৭ জনকে আটক করে। এ আসামিদের মধ্যে ১৫ জন ওয়ারেন্টভূক্ত। ৩জন মাদক ব্যবসায়ী, ২৩ জন অন্যান্য ও মাদকসেবী।

এছাড়াও বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ সপুরা বিসিক এলাকা থেকে নুর নবীকে (১৮) ২০০ গ্রাম গাঁজা, রাজপাড়া থানা পুলিশ হড়গ্রাম পূর্বপাড়া থেকে মোসা. আজিজাকে (৩৫) ৭৫ পিচ ইয়াবা, মতিহার থানা পুলিশ মাসকাটা দিঘী পশ্চিমপাড়া থেকে জাহাঙ্গীর আলম টুনুকে (৪০) ১০ পিচ ইয়াবাসহ আটক করা হয়।

পবায় হত্যা মামলায় আটককৃতরা হলেন, বাকশৈল গ্রামের মৃত রুস্তোম আলীর ছেলে ফরমান আলী (২৩) ও মনিরুল ইসলাম (২০), আব্দুল হামিদের ছেলে সোনারুল ইসলাম (২৫) ও মনিরুল ইসলাম (৩০) দেলজানের ছেলে সাদেকুল ইসলাম (২২), মৃত আনার উদ্দিনের ছেলে দেলজান আলী (৫৫)। মারামারির অভিযোগে পবার মেজভালাম গ্রামের মৃত আজিমুদ্দিনের ছেলে আবুল হোসেন (৪৮), সন্দেহজনক আটক কর্ণহারের ফয়েজুল ইসলামের ছেলে পারভেজ মোশারফ (২০), হারুন-অর-রশিদের ছেলে সুইট হোসেন (২১) এবং শিতলাই গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে শাহনেওয়াজ কবির (২২)। এছাড়াও ওয়ারেন্টভুক্ত তিনজন।

আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই