মেইন ম্যেনু

রাজাকারের ফাঁসি হলেই পাকিস্তানের ‘গা জ্বালা’ করে

নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান বলেছেন, ‘বাংলার মাটিতে যখনই মানবতা বিরোধী অপরাধীদের সাজা কাযকর হয় তখনই পাকিস্তান নামক রাষ্ট্রের ‘গা জ্বালা’ করে। এতেই প্রমাণ হয়, সেসব রাজাকার-আলবদর-আলশামস বাহিনীর সদস্যরা সাচ্চা পাকিস্তানি ছিল।’

বুধবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক গণ অবস্থান কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামের আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির রায় বহাল রাখার দাবিতে এ অবস্থান কর্মসূচির আয়োজন করেছে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন প্রজন্ম মঞ্চ’।

শাহজাহান খান বলেন, ‘ইতোমধ্যে চারজন যুদ্ধাপরাধীর বিচর কার্যকর হয়েছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের বিচারকগণ অত্যন্ত বিচক্ষণতার সঙ্গে এসব বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। যা বিশ্বের অনেক দেশেই করা সম্ভব হয়নি।’

তিনি আরো বলেন, ‘পাকিস্তান সরকার সে দেশে বাংলাদেশ দুতাবাসের কর্মকর্তাদের বিনা কারণে অব্যাহতি দিচ্ছে। অথচ ঢাকাস্থ পাকিস্তান দূতাবাস এদেশে জঙ্গি তৎপরতাকে যেভাবে মদদ দিচ্ছে সে বিষয়ে মুখ খুলছে না।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য শিরিন আক্তার, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী মনোরঞ্জন ঘোষালসহ আয়োজক সংগঠনের নেত্রীরা।

উল্লেখ্য, নিজামীর ফাঁসির রায় বহালের দাবিতে সকাল ৯টা থেকে প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নেয় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন প্রজন্ম মঞ্চের নেতা-কর্মীরা। আদালত ফাঁসির রায় বহাল রাখার পরেও সকাল সোয়া ৯টা থেকে
প্রেসক্লাবের সামনের সড়ক বন্ধ করে অবস্থান করে তারা। সড়কটিতে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকায় দুর্ভোগে পরেছে সাধারণ মানুষ।






মন্তব্য চালু নেই