মেইন ম্যেনু

রাজাপুরে রিমান্ডের আসামীর থানায় আত্মহত্যার চেষ্টা! হাপাতালে ভর্তি, মামলা

আল আমিন, ঝালকাঠি : ঝালকাঠি রাজাপুর থানার রিমান্ড সেলে রবিউল ইসলাম বুলবুল (৩০) নামে প্রতারণা মামলার রিমান্ডের এক আসামী কোমরে থাকা ফিতা দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সকালে থানার রিমান্ড সেলে এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানায়। পরে ওই রিমান্ডের আসামীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় পুলিশ উদ্ধার করে সকাল ৮টার দিকে রাজাপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করান।পুলিশ পাহারায় সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।

পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাইপাস এলাকার দুলাল নামের এক ব্যবসায়ীর দোকান থেকে বুলবুল তার দুই সহযোগী নিয়ে প্রতারণা করে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ০৫/০৪/১৬ ইং তারিখে রাজাপুর থানায় মামলা (নং ০২) দায়ের হয়। ওই মামলায় উপজেলার বড় কৈবর্তখালি গ্রামের মৃত মালেক হোসেনের ছেলে আসামী রবিউল ইসলাম বুলবুলকে গ্রেফতার করে ঝালকাঠি চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে মঙ্গলবার বিকেলে এক দিনের রিমান্ডে আনে মামলার আইও এসআই আব্দুল কাইউম। রিমান্ডে এনে তার সহযোগীদের পরিচয় বের করার জন্য এসআই আব্দুল কাইউম রাতভর নানাভাবে অমানুষিক নির্যাতন চালায় বলে আসামীর স্বজনদের অভিযোগ। পরে এসআই কাইউম রিমান্ড সেল থেকে বেরিয়ে গেলে ভোরে কোমরে থাকা ফিতা দিয়ে গ্রীলের সাথে ফাস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আসামী মানুষিকভাবে বিপর্যস্ত হওয়ায় সাংবাদিকদের সাথে তিনি সঠিকভাবে কথা বলতে বা কোন তথ্য দিতে পারেনি।

রাজাপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের টিএইচও ডাঃ মাহাবুবুর রহমান জানান, রবিউল ইসলাম বুলবুল এখনও শঙ্কা মুক্ত নয়, তাকে নিবির পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে। তবে রাজাপুর থানার এসআই আব্দুল কাইউম অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, আসামীর তার কাছেই যাইনি। আসামীর কোমরের ফিতা দিয়ে কেন সে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে সে নিজেই জানে’’। রাজাপুর থানার ওসি/তদন্ত হারুন অর রশিদ জানান, আসামী বুলবুলের কোমরে থাকা ফিতা (গাছ বাধার ফিতা) খুলে গ্রীলের সাথে লাগিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এ ঘটনায় আসামী বুলবুলের বিরুদ্ধে আত্মহত্যা চেষ্টার অভিযোগে মামলা (নং০৩/ধারা৩০৯) দায়ের হয়েছে এবং তাকে আদালতে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে, জানান হারুন অর রশিদ।






মন্তব্য চালু নেই