মেইন ম্যেনু

রাজীব গান্ধীর খুনীকে প্যারোলে মুক্তি

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর অন্যতম প্রধান খুনী নলিনী শ্রীহরনকে প্যারোলে মুক্তি দেয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার মাদ্রাজ হাইকোর্টে নলিনীর করা একটি প্যারোল আবেদনের শুনানি শেষে তাকে একদিনের জন্য মুক্তি দেয়া হয়।

নলিনী তার বাবার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ষোড়ষতম দিনে অংশগ্রহণের জন্য আদালতের কাছে তিনদিনের জন্য প্যারোল মুক্তির আবেদন করলে আদালত একদিনের মুক্তির আদেশ দেন।

এ বিষয়ে বিচারক আর মালা জানিয়েছে, ‘অভিযুক্তের আবেদনের ভিত্তিতে আদালত ২৪ ঘন্টার জন্য তাকে পেরোলে মুক্তি দিয়েছে। তার প্যারোল আদেশ মঙ্গলবার বিকাল ৪টা থেকে বুধবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত বহাল থাকবে।’

১৯৯১ সালের ২১ মে চেন্নাইয়ের কাছে শ্রীপেরুমবুদুরে রাজিব গান্ধীর এক নির্বাচনী সমাবেশে এক আত্মঘাতী হামলাকারী হামলা চালিয়ে নির্বাচনী মঞ্চ উড়িয়ে দেয়। এতে রাজিব গান্ধীসহ প্রায় ১৪ জন নিহত হন।

এই হামলার সাথে জড়িত ৭ আসামির একজন নলিনীকে ১৯৯৮ সালের ২৮ জানুয়ারি আদলত মৃত্যুদণ্ড দেয়। কিন্তু নলিনীর মেয়ে সন্তানের কথা বিবেচনা করে দণ্ডাদেশ কমিয়ে যাবজ্জীবন দেয়া হয় ২০০০ সালের এপ্রিলে।

এদিকে তামিলনাড়ু মুখ্যসচিব জিনানাদেসিকানকে ২০১৫ সালের মার্চে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব রাজিব মেহর্ষিকে একটি চিঠি লিখেছেন। এ বিষয়ে রাজিব মেহর্ষি জানান, অভিযুক্তরা যেহেতু এরই মধ্যে তাদের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের ২৪ বছর পার করেছে, তাই তাদের শাস্তি লাঘব করে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত বিবেচনায় নিয়েছে তামিলনাড়ু সরকার। নলিনী ইতিমধ্যে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের ২৪ বছর পার করেছে।






মন্তব্য চালু নেই