মেইন ম্যেনু

রাণীনগরে চার দশক ধরে বেদখল হওয়া সম্পত্তি দশ বছরের মামলায় উদ্ধার

কাজী আনিছুর রহমান, রাণীনগর (নওগাঁ) সংবাদদাতা: নওগাঁর রাণীনগরে প্রায় চার দশক ধরে বেদখল হওয়া পৈত্রিক সম্পত্তি দশ বছর ধরে মামলা চলার পর আইনি প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন শেষে নওগাঁ রাণীনগর সহকারি জজ আদালত ২৮ জুলাই ২০১৩ইং তারিখে একতরফা সূত্রে মামলার বাদী মোঃ আব্দুর রহমান চৌধুরী দিং কে উপজেলার চককুতুব মৌজার ত্রিমোহনী হাট নামক স্থানে সাড়ে ৪৬ শতক জমির ডিক্রী দিলে জেলা জজ আদালতের নাজির ও জারিকারকের উপস্থিতিতে লাল পতাকা টাঙ্গিয়ে ঢোল শহরত করে বাদি ও তার ওয়ারিশগণদের জমি বুঝিয়ে দেন।

জানা গেছে, নওগাঁ সদর থানার মেইন রোডে অবস্থিত চৌধুরী মার্কেটের স্বতাধিকারি মৃত কমর উদ্দিনের পুত্র মোঃ আব্দুর রহমান ওরফে মন্টু চৌধুরী দিং বাদী হয়ে রাণীনগর উপজেলার চককুতুব মৌজায় অবস্থিত ৪৬ শতক জমি বেদখল হয়ে গেলে সেই সম্পত্তি উদ্ধারের জন্য ২০০৬ সালে মৃত আবুল কাসেম চৌধুরীর ওয়ারিশ আবেদা বেওয়া গং সাং চককুতুব প্রধান শিক্ষক ত্রিমোহনী উচ্চ বিদ্যালয় ও বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে ডেপুটি কমিশনার নওগাঁসহ ৭জনকে বিবাদি করে রাণীনগর সহকারি জজ আদালত নওগাঁয় একটি মামলা করে যার নং ৩৭/২০০৬ (বাটোয়ারা) প্রায় এক দশক ধরে মামলা চলার পর বিজ্ঞ বিচারক রাণীনগর থানাধীন চককুতুব মৌজার নালিশি তফশিল ভূক্ত সম্পত্তি যার সাবেক দাগ ১২২, ১৩৭, ১৪৩ হাল দাগ ৫০৩, ৫০৬, ৫২৪ দাগের ৯২ শতক জমির কাতে সাড়ে ৪৬ শতক বাদি মোঃ আব্দুর রহমান চৌধুরী দিং এর পক্ষে রায় দিলে এ্যাডভোকেট সার্ভে কমিশনার আব্দুল মালেক জজ কোর্ট নওগাঁ গত ৩০ জুন ২০১৪ইং তারিখে নালিশি সম্পত্তি রকম প্রকৃতি পরিমান বিবেচনা করিয়া সম্পত্তি মূল্যমানের সমতা রাখিয়া পক্ষগণের দখল যতদূর সম্ভব আইন ও ন্যায় নীতির ভিত্তিতে সুবিধা অসুবিধার প্রতি লক্ষ্য রেখে বাদি পক্ষের ছাহাম প্রাপ্ত অংশের বাবদ পৃথক ছাহাম প্রস্তুত করে ১৪/০৫/২০১৫ ইং তারিখে সহকারি জজ আদালতে জমা দিলে তা গৃহীত হওয়ার পর জারি মামলা ০৪/২০১৫ (বাটোয়ারা জারি) প্রেক্ষিতে গত ১৫/০১/২০১৬ ইং তারিখে সকাল ১০টায় জেলা জর্জ কোর্টের জারি কারক মোঃ রহিচ উদ্দিন ছাহামের প্রাপ্ত সম্পত্তি নির্ধারণের জন্য ঘটনাস্থল ত্রিমোহনী হাটে আসিলে কতিপয় ব্যাক্তি কাজকাম বন্ধ করে দিলে পূণরায় গত শুক্রবার সকাল ১১টায় জর্জ কোর্টের নাজির রায়হান উদ্দিন বিশ্বাস সার্ভে কমিশনার এ্যাডঃ মোঃ খায়রুল আলম বাপ্পী রাণীনগর থানা পুলিশের উপস্থিতিতে ডিক্রিদার মোঃ আব্দুর রহমান চৌধূরী দিং এর পক্ষে ঢোল শহরত করে লাল পতাকা টাঙ্গিয়ে দিয়ে সাড়ে ৪৬ শতক জমির সীমানা নির্ধারণ করে দেয়।

এব্যাপারে জেলা জজ আদালতের নাজির রায়হান উদ্দিন বিশ্বাস জানান, বাটোয়ারা মামলা ৩৭/২০০৬ এর ডিক্রি মোতাবেক জারি মামলা ০৪/২০১৫ বিজ্ঞ জেলা জজ আদালতের নির্দেশে আজ ডিক্রিদার মোঃ আব্দুর রহমান চৌধুরী দিং এর পক্ষে সাড়ে ৪৬ শতক জমি সীমানা নির্ধারণ করে বুঝিয়ে দিলাম।

রাণীনগর থানার এসআই মুনির জানান, উক্ত নালিশি সম্পত্তির ডিক্রি জারি করার জন্য আদালতে পুলিশের সহযোগীতা চাইলে বিজ্ঞ আদালত পুলিশ সুপার মহোদয়কে আদেশ দিলে সে মোতাবেক রাণীনগর থানা পুলিশ যথাযথ নির্দেশনা পালনের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করে।






মন্তব্য চালু নেই