মেইন ম্যেনু

রাতেই দাফন সম্পন্ন হয় হোসি কোনিওর

সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে রংপুরের মাটিতেই দাফন করা হয়েছে কাউনিয়ায় দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত জাপানি নাগরিক হোসি কোনিওকে (গোলাম কিবরিয়া)।

সোমবার দিবাগত রাতে অনেক গোপনীয়তার মধ্যে তাকে রংপুরের মুন্সীপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়।

মঙ্গলবার হোসি কোনিওকে (গোলাম কিবরিয়া) দাফন করা হবে এমন খবর জানা গেলেও রাতেই দাফনের বিষয়টি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে আজ সকালে সাংবাদিকদের জানান রংপুরের জেলা প্রশাসন রাহাত আনোয়ার।

তিনি জানান, লাশ দাফনের সময় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট প্রিয়সিন্দু তালুকদার উপস্থিত ছিলেন।

তবে একটি সূত্র জানিয়েছিল, হোসি কোনিওকে আজ দাফন করা হবে। মঙ্গলবার জাপান দূতাবাসের সঙ্গে আলোচনার পর রংপুর সিটি মেয়র শরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু জেলা প্রশাসককে জাপানি নাগরিকের দাফন রংপুরে করার জন্য বলবেন। কিন্তু সকালে জেলা প্রশাসক জানান, হোসি কোনিওর লাশ রাতেই মুন্সীপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

গত ৫ জানুয়ারি সকালে রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার আলুটারি এলাকায় দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হন জাপানি নাগরিক হোসি কোনিও।

এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়। পরে এ ঘটনায় বিএনপি নেতা রাশেদ উন নবী খান বিপ্লবকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে দুইজনকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়।

এ ঘটনার পর জাপানের দুটি প্রতিনিধিদল লাশ গ্রহণের জন্য রংপুরে যায়।

পরে হোসি কোনিওর মুসলমান হওয়ার ব্যাপারটি জানাজানি হলে তার পরিবার লাশ গ্রহণের কোনো ইচ্ছা প্রকাশ করনি।

লাশ জাপানে নেয়া হবে না রংপুরেই দাফন হবে এ নিয়ে অনেক আলোচনার পর অবেশেষ গোপনীয়তার মধ্যেই রংপুরে দাফন করা হলো হোসি কোনিওকে।






মন্তব্য চালু নেই