মেইন ম্যেনু

‘রানা প্লাজা’ চলচ্চিত্র সম্প্রচারে আর বাধা নেই

সাভারের রানা প্লাজার ধ্বংসস্তূপ থেকে গার্মেন্টস কর্মী রেশমাকে উদ্ধারের ঘটনা নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র ‘রানা প্লাজা’র প্রদর্শন স্থগিত চেয়ে করা রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে ‘রানা প্লাজা’ চলচ্চিত্র মুক্তি দিতে আর কোনো বাধা থাকলো না বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন ৪ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে ‘রানা প্লাজা’র প্রযোজকের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ ও এ এম আমিন উদ্দিন। রিটকারী ন্যাশনাল গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স এমপ্লয়িজ লীগের সভাপতির পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার এম. আমিরুল ইসলাম।

এর আগে গত ১০ সেপ্টেম্বর চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী রানা প্লাজা চলচ্চিত্র মুক্তির বিরুদ্ধে স্থিতাবস্থা জারি করেন এবং প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে পূর্ণাঙ্গ আপিল বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন।

গত ৬ সেপ্টেম্বর ‘রানা প্লাজা’র প্রদর্শনী ও সম্প্রচারের ওপর হাইকোর্টের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করেন আপিল বিভাগ। পরে এই আদেশের বিরুদ্ধে রিভিউ করেন রিটকারীর আইনজীবী।

এর আগে ২৪ আগস্ট ‘রানা প্লাজা’ প্রদর্শন ও সম্প্রচারের ওপর ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের হাইকোর্ট বেঞ্চ। একই সঙ্গে সেন্সর বোর্ডের দেওয়া সনদের কার্যকারিতাও ওই সময়ের জন্য স্থগিত করা হয়।

‘রানা প্লাজা’ চলচ্চিত্রের সেন্সর বোর্ডের দেওয়া সনদ কেন বাতিল করা হবে না জানতে চেয়ে একটি রুলও জারি করেন আদালত।

২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিলের সাভারের রানা প্লাজা ধসের ঘটনা অবলম্বনে চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেন পরিচালক নজরুল ইসলাম খান। এতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরীমনি ও সায়মন।

গত ৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার শামীম আকতার প্রযোজিত চলচ্চিত্রটি দেশের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল।

১৬ জুলাই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড ‘রানা প্লাজা’ চলচ্চিত্রকে সনদপত্র দেয়।






মন্তব্য চালু নেই