মেইন ম্যেনু

রান্নাঘরের টুকিটাকি দিয়ে কীভাবে করবেন পোড়ার উপশম?

তাড়াহুড়োয় রান্নাঘরে কাজ করতে গিয়ে অনেকেই অন্যমনস্ক হয়ে ছোটখাট চোট-আঘাত পেয়ে থাকেন৷ কখনও ছুরিতে বা বঁটি তে হাত কেটে ফেলছেন তো কখনও গরম তেল পড়ে গিয়ে পুড়ে যাচ্ছে আপনার হাত। হাতের কাছে বার্নল না থাকলে ফোসকা পড়ে গিয়ে জ্বালা, ইনফেকশেনর সমস্যা ভোগায় অনেক দিন। অনেক সময় ত্বকে পোড়ার বিচ্ছিরি দাগও হয়ে যায়। হাতের কাছে রান্নাঘরে অবশ্যই রাখুন এই ১২টা জিনিস। যা দিয়ে পোড়া ত্বকের জ্বালাও কমবে নিমেশেই, আবার ফোসকা পড়াও রুখতে পারবেন নিজেই।

• ডিমের সাদা অংশ: ফ্রিজে রাখা ঠান্ডা ডিমের সাদা অংশ ফোসকা পড়া রুখতে পারে।

• ঠান্ডা দুধ: পোড়া হাত ঠান্ডা দুধের মধ্যে কিছু ক্ষণ ডুবিয়ে রাখুন। জ্বালা কমে যাবে।

• কাঁচা আলু: কাঁচা আলু গ্রিড করে নিয়ে ত্বকের পোড়া অংশে লাগান বা আলু স্লাইস করে কেটে পোড়া অংশে লাগিয়ে রাখুন।

• মধু: গজ ব্যান্ডেজের মধ্যে মধু লাগিয়ে পোড়া অংশে বেঁধে দিন। এক দিনের মধ্যে দু-তিন বার ব্যান্ডেজ বদলান।

• পেঁয়াজের রস: পেঁয়াজের মধ্যে সালফার ও কোয়ারসেটিন থাকায় জ্বালা কমাতে
ও ক্ষত সারাতে সাহায্য করে। এতে ফোসকা পড়াও রুখতে পারে।

• টি ব্যাগ: চায়ের মধ্যে থাকা ট্যানিন জ্বালা কমায় ও ক্ষত সারাতে সাহায্য করে।
ঠান্ডা জলে টি ব্যাগ ডুবিয়ে রাখুন। পোড়া ত্বকে ওপর চেপে রাখুন ভেজা টি ব্যাগ।টি ব্যাগ: চায়ের মধ্যে থাকা ট্যানিন জ্বালা কমায় ও ক্ষত সারাতে সাহায্য করে।
ঠান্ডা জলে টি ব্যাগ ডুবিয়ে রাখুন। পোড়া ত্বকে ওপর চেপে রাখুন ভেজা টি ব্যাগ।

• ভিনিগার: সরাসরিও লাগাতে পারেন বা কোনও পরিষ্কার পাতলা কাপড় ভিনিগারে ভিজিয়ে চেপে রাখুন।

• ভিনিগার ক্ষত পরিষ্কার করে ইনফেকশন রুখতে সাহায্য করে।

• বেকিং সোডা: ঠান্ডা জলে বেকিং সোডা গুলে পেস্ট তৈরি করে পোড়ার ওপর লাগিয়ে রাখুন।
শুকিয়ে গেলে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। যত দিন না সারছে এটা রোজ ব্যবহার করতে পারেন

• নারকেল তেল ও লেবুর রস: পোড়া ত্বকে নারকেল তেলের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে লাগান। নারকেলের মধ্যে ভিটামিন ই, অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ও ফ্যাটি
অ্যাসিড থাকায় এর অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি ফাংগাল গুণ রয়েছে। যা ক্ষত সারাতে সাহায্য করে। লেবুর মধ্যে থাকা অ্যাসিড দাগ মিলিয়ে দেয়।

• মিন্ট টুথপেস্ট: রান্নাঘরে মিন্ট টুথপেস্টের একটা টিউব রেখে দিন। পোড়া ত্বক ঠান্ডা
জলের তলায় ধরে ধুয়ে নিয়েই সঙ্গে সঙ্গে লাগিয়ে রাখুন পেস্ট। এতে জ্বালা কমে যাবে। মিন্ট ছাড়াও যে কোনও পেস্ট ব্যবহার করতে পারেন৷

• অ্যালভেরা জেল: রান্নাঘরে রেখে দিন অ্যালভেরা জেল। পুড়ে গেলে লাগিয়ে নিন সঙ্গে সঙ্গে।
বাগানে অ্যালয় ভেরা গাছ থাকলে পাতা ছিঁড়ে পোড়া ত্বকে ঘষলেও উপকার পাবেন।

• ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল: দু’কাপ জলের মধ্যে ৫ ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন।
তুলোয় ভিজিয়ে পোড়া ত্বকে লাগান। এতে ফোসকাও পড়বে না, জ্বালাও কমবে। তবে জলে না মিশিয়ে সরাসরি ল্যাভেন্ডার অয়েল লাগাবেন না৷






মন্তব্য চালু নেই