মেইন ম্যেনু

রাবিতে ছাত্রলীগের হল সভাপতির ওপর কর্মীর হামলা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুটি হলে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার পর সৈয়দ আমীর আলী হলের নতুন কমিটির সভাপতি ওপর হামলা করেছেন পদ না পাওয়া এক কর্মী। এতে সভাপতি নাজমুল ইসলাম সজল আহত হন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

গতকাল শনিবার বিকেলে ছাত্রলীগ কর্মী জুবায়ের আহমেদ পুলক এ হামলা চালান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও দলীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সৈয়দ আমীর আলী ও শাহ মখুদম হলের কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটিতে আমীর আলী হলে নাজমুল ইসলাম সজলকে সভাপতি, মারুফ হাসান নয়ন সহ সভাপতি, সৈকত হোসেন সাধারণ সম্পাদক ও তারিকুর রহমান বাবুকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।

এছাড়া শাহ মখুম হলে আরিফ বিন জহিরকে সভাপতি, রেজওয়ানুল হক হৃদয় সহ-সভাপতি, কামরুজ্জামান কিরণ সাধারণ সম্পাদক, শেখ আবু জাফরকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সৌমিক সারওয়ার সম্রাট সাংগঠনিক সম্পাদক (১) ও তন্ময়কে সাংঠনিক সম্পাদক (২) করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান রানা ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লব স্বাক্ষরিত কমিটির তালিকা হলে পৌঁছলে পদ বঞ্চিতরা নতুন কমিটিকে গ্রহণ না করে উত্তেজনা সৃষ্টি করেন।

এসময় সৈয়দ আমীর আলী হল ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি নাজমুল ইসলাম সজল হল থেকে তার ওপর হামলা চালায় করে সাধারণ সম্পাদক পদবঞ্চিত কর্মী জুবায়ের আহমেদ পুলক। পুলক ও তার সহযোগীদের হামলায় সজলের মাথা ফেটে যায়। পরে হলের কয়েক জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যান। সেখানে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান রানা বলেন, ‘খবর পেয়ে আমি নিজে হলে গিয়ে নেতাকর্মীদের শান্ত করেছি। হামলাকারী কর্মী পুলক নিজেকে ছাত্রলীগ পরিচয় দিলেও সে আসলে ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিল। তাই তাকে পদ দেয়া হয়নি। এছাড়া তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই