মেইন ম্যেনু

রাবিতে সঙ্গীত বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুরু

ইয়াজিম ইসলাম পলাশ, রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) সঙ্গীত বিষয়ক তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সেমিনার ও সম্মেলন শুরু হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে ‘শান্তির জন্য সঙ্গীত’ শীর্ষক এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ভারতের সঙ্গীতাচার্য অমিয় রঞ্জন বন্দোপাধ্যায়।

রাবি উপাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ মিজানউদ্দিনের সভাপতিত্বে আনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর । বিশেষ অতিথি ছিলেন রাবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী সারওয়ার জাহান, রাজশাহীতে নিযুক্ত সহকারী ভারতীয় হাই কমিশনার অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও রাজশাহী বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার সুলতান আব্দুল আহমেদ।

অনুষ্ঠানে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘বর্তমানে অবিভাবকরা জ্ঞান অন্নেষণের চিন্তা বাদ দিয়ে ফলাফল ভালো করতে ছেলে-মেয়েদেরে নির্যাতন শুরু করেছেন। শিক্ষার্থী ও অবিভাবকরা সকলে মিলে জিপিএ ৫ এর পেছনে ছুটছেন। তারা এখন আর শিক্ষার্থী নেই সব পরীক্ষার্থী। শুধুমাত্র ছেলে-মেয়েরা জিপিএ ৫ পাবে এ আশায় স্কুল-প্রাইভেট নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন’।

মন্ত্রী বাংলাদেশের সংস্কৃতি নিয়ে বলেন, শিক্ষার্থীরা এখন বাংলাদেশের সংস্কৃতি ভুলে পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তারা আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতি গান, গল্প, কবিতা নিয়ে চর্চা করা বাদ দিয়ে দিয়েছেন। আর এর জন্যে অবিভাবরাই দায়ী। তারা এ পড়াশোনায় সর্বদা চাপ দিয়ে চলেছেন। রেজাল্ট ভালো করার পাশাপাশি নিজস্ব সংস্কৃতিকে চর্চা করে টিকিয়ে রাখতে হবে। এ দায়িত্ব আমাদের, এ দায়িত্ব শিক্ষার্থী-অবিভাবক সকলের।

সংগীত বিভাগের শিক্ষক সানজিদা মঈদ, সোনিয়া শারমিন খান ও বিভাগের গবেষক শতাব্দী আচাযের্র সঞ্চালনায় বিভাগের সভাপতি প্রফেসর অসিত রায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মঞ্চে অতিথিবৃন্দ মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বালন করেন। সেখানে তাঁদের সংগীত বিভাগের পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেস্ট ও উত্তরীয় প্রদান করা হয়।

উপাচার্য বলেন, স্বতন্ত্র বিষয় হিসেবে সংগীত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অন্যতম নবীন বিভাগ। তবে বিভাগটি ইতোমধ্যে পঠন-পাঠন ও গবেষণায় সকলের মনোযোগ আকর্ষণ করেছে। সংগীত ও সংশিষ্ট বিষয়ে বিভাগটির বিভিন্ন আয়োজন ক্যাম্পাসে সংস্কৃতি চর্চায় নতুন বাতায়ন উন্মোচন করেছে।

উল্লেখ্য, এই আয়োজনে ৩টি সেমিনার ও ৩টি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বলে নির্ধারিত আছে। সেমিনার ও সম্মেলনে বাংলাদেশ, ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য বেশ কয়েকটি দেশ থেকে সংগীতজ্ঞ, শিল্পী, গবেষক, শিক্ষার্থী ও সংগীতবোদ্ধা অংশ নেবে।






মন্তব্য চালু নেই