মেইন ম্যেনু

রাবিতে সাংস্কৃতিক জোটের গণঅনশন

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণশিল্পী সংস্থার সদস্য ও কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটের প্রাক্তন সভাপতি বাসুদেব রায়ের ওপর হামলার প্রতিবাদে গণঅনশন কর্ম সূচি পালন করা হয়েছে।

এসময় ছাত্রলীগ কর্মী সজীব ও তার সহযোগীদের বিচারের দাবি করা হয়।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত উপাচার্যের বাস ভবনের সামনে এ কর্মসূচি শুরু করে।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক কণিকা গোপের নেতৃত্বে সাংস্কৃতিককর্মীরা অভিনয়, আবৃত্তি, গান ও বক্তব্যের মাধ্যমে এ অনশন কর্মসূচি চালায় তারা।

এ সময় সাংস্কৃতিককর্মী তারিকুল ইসলাম রোমিও বলেন, ‘আমরা এখানে যুদ্ধ করতে আসিনি, অধিকার আদায়ের আন্দোলন করতে এসেছি। আমাদের দাবি যতক্ষণ মেনে না নেওয়া হবে ততক্ষণ আমাদের অনশন কর্মসূচি চলতে থাকবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আজ আপনারা যারা নিরাপদ মনে করছেন, তারা কেউ নিরাপদ না। ওরা আমাদের ঘরে ঢুকে মেরে এসেছে। আপনাদেরও যেকোনো সময়, কোনো কারণ ছাড়া মারবে।’

এদিকে, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চালানোর কথা থাকলেও দুপুর ১২টার দিকে কর্মসূচি শেষ করে সাংস্কৃতিক কর্মীরা।

এ ব্যাপারে জোটের সাধারণ সম্পাদক কণিকা গোপ বলেন, ‘আমরা দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহম্মদ মিজানউদ্দিন অনশন না করার জন্য অনুরোধ করেন এবং আজকের দিনটি সময় নিয়েছেন। রাবি উপাচার্যের সম্মানার্থে অনশন কর্মসূচি বন্ধ করেন বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার (৯ জুন) সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টেডিয়াম মার্কেটে বাংলাদেশ গণশিল্পী সংস্থার কার্যালয়ে বাসুদেবকে পিটিয়ে পা ভেঙে দেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকর্মী সজীব তার সহযোগীরা।






মন্তব্য চালু নেই