মেইন ম্যেনু

রামপাল : ইউনেস্কোকে আশ্বস্ত করল বাংলাদেশ

সুন্দরবনের রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের উদ্বেগ জানিয়ে ইউনেস্কোর চিঠির জবাব দিয়েছে বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নুরুল করিম গণমাধ্যমকে বলেন, নৌ অধিদপ্তরসহ কয়েকটি মন্ত্রণালয়ের মূল্যায়ন প্রতিবেদন সম্বলিত করে গত রোববার ইউনেস্কোর প্রতিবেদনের জবাব দিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের কারণে সুন্দরবনের ক্ষতির যে আশঙ্কা ইউনেস্কো প্রকাশ করেছে, তা ভুল তথ্যের ভিত্তিতে করা হয়েছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের কারণে পরিবেশের কোনো ক্ষতি হবে না বলে ইউনেস্কোকে আশ্বস্ত করা হয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে প্রাক্তন বন ও পরিবেশমন্ত্রী হাছান মাহমুদ প্রেসক্লাবে এক মানববন্ধনে বলেছেন, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ইউনেস্কোকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বিজ্ঞান সম্মতভাবেই হচ্ছে। এটা পরিবেশের কোনো ক্ষতি করবে না। আশা করি, ইউনেস্কো বুঝতে পারবে তাদের প্রতিবেদনটি ভুল ছিল।

প্রসঙ্গত, সুন্দরবনের রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের আপত্তি জানিয়ে বাংলাদেশে বিভিন্ন নাগরিক সংগঠন ও পরিবেশবাদীদের আন্দোলনের মধ্য গত মাসে ইউনেস্কোও উদ্বেগ জানিয়ে চিঠি দেয়।

ভারতের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে বাগেরহাটের রামপালে যে স্থানে বিদ্যুৎকেন্দ্রটি হচ্ছে, তা সুন্দরবনের প্রান্তসীমার চেয়ে ১৪ কিলোমিটার দূরে এবং বনের বিশ্ব ঐতিহ্য অংশ থেকে ৬৭ কিলোমিটার দূরে।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই