মেইন ম্যেনু

রামপাল নিয়ে ইউনেস্কোর প্রতিবেদন হাস্যকর

রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে ইউনেস্কোর দেয়া প্রতিবেদন হাস্যকর বলে আখ্যায়িত করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেছেন, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বিরোধী পক্ষ দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ইউনস্কো ওই প্রতিবেদন দিয়েছে।

সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। আগামী ২২-২৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য দলটির ২০তম জাতীয় সম্মেলন সফল করতে এ বৈঠক আয়োজন করা হয়।

হাছান মাহমুদ বলেন, ইউনেস্কোর প্রতিবেদন আমি পড়েছি। তা পড়ে মনে হয়েছে এ প্রতিবেদন আন্দোলনকারীদের দ্বারা প্রভাবিত।

হাছান মাহমুদ বলেন, ইউনেস্কোর প্রতিবেদনে কিছু হাস্যকর যুক্তি তুলে ধরা হয়েছে। যেমন: ৩৬ কিলোমিটার নদী ড্রেজিং করলে নদীর নাব্যতা কমে, নদী ধ্বংস হয়ে যাবে এমন কথাও লিখেছে। আমি পরিবেশ বিজ্ঞানের ছাত্র এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে তা পড়িয়েছিও। কিন্তু নদী ড্রেজিংয়ের কারণে নাব্যতা নষ্ট হয়ে যায় তা আমার জানা ছিল না।

তিনি বলেন, রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। এ প্রতিবেদনের জবাব দেওয়ার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে কাজ করা হচ্ছে। আমি আশা করি সরকারের জবাবের পরই ইউনেস্কোর কাছে এর বাস্তব চিত্র উঠে আসবে এবং তারা আশ্বস্ত হবে।

বিএনপি দেশে কোনো সভাসমাবেশ করতে পারছে না বলে অভিযোগের জবাবে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, দেশে এত সভা সমাবেশ করে তা কারা করে? এগুলো কি বিএনপি করে না? নাকি অন্য কেউ করে? সেটি আমাদের প্রশ্ন। কারণ, বিএনপি সবসময়ই সভাসমাবেশ করছে। তবে সম্ভবত তারা যে আগের মতো অগ্নি সন্ত্রাস চালাতে পারছে না তা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বলতে চাচ্ছে বিএনপি।

কমিটির আহ্বায়ক ও প্রধানমন্ত্রী রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন- সদস্য সচিব ও দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, সদস্য বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু, অসীম কুমার উকিল, সানজিদা খানম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই