মেইন ম্যেনু

রামপাল নিয়ে সদুত্তর দিতে পারেনি সরকার : খালেদা

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের প্রতিবাদে যে সংবাদ সম্মেলন করেছিলাম তার অনেক সমালোচনা করেছে সরকার। তবে কোনো পয়েন্টের সদুত্তর তারা দিতে পারেনি। বৃহস্পতিবার বিকেলে দলের ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে আলোচনা সভাটির আয়োজন করে।

আলোচনা সভায় খালেদা জিয়া বলেন, সুন্দরবনের পাশে কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র হওয়া উচিত নয়, অনেক ক্ষতি হবে। সুন্দরবন শেষ হয়ে যাবে। পৃথিবীর অনেক কম দেশের এমন বন রয়েছে। অনেক দেশে এত সুন্দরবন আবার নেইও।

খালেদা জিয়া বলেন, আমি কখনো বলিনি বিদুৎকেন্দ্র বন্ধ রাখতে হবে। যে জায়গায় ক্ষতি হয়, সেখানে না করার কথা বলেছি। আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো পরিবেশ নিয়ে অনেক কনসার্ন (উদ্বিগ্ন), তাই তিনটি সংস্থা বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের জন্য টাকা দেয়নি।

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, একই প্রজেক্ট ভারতে হওয়ার কথা ছিল কিন্তু জনগণের প্রতিবাদের মুখে তা বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে সে দেশের সরকার। কারণ তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত। কিন্তু বাংলাদেশে এর চেয়েও খারাপ প্রজেক্ট নিয়ে আসা হচ্ছে। লাভ হলে ভাগ হবে, লোকসান হলে আমাদের ওপর পড়বে। এটা কেমন করে হয়?

এই সরকার দেশের স্বার্থবিরোধী, জনগণের বিরোধী বলেও মন্তব্য করেন খালেদা জিয়া।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে অালোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।






মন্তব্য চালু নেই