মেইন ম্যেনু

রামায়ণ পরীক্ষায় ৯৩ পেয়ে প্রথম হলেন মুসলিম কন্যা

ভারতজুড়ে চলছে অসহিষ্ণুতা। আর এমন সময় সামনে এল এমন একটি ঘটনা যা অবাক করার মতোই। কর্নাটকের পুত্তুর শহরের মুসলিম কন্যা ফাতিমাত রাহিলা। তিনি রামায়ণের উপর একটি পরীক্ষায় সবাইকে পিছনে ফেলে দিয়ে ৯৩ শতাংশ নম্বর নিয়ে প্রথম হয়েছেন। ভারত সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠানের তত্ত্বাবধানে এই পরীক্ষাটি হয়েছিল।

জানা গেছে, সুলিয়াপাদাভুর সর্বোদয় উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী ফাতিমাতের ছোট থেকেই রামায়ণ এবং মহাভারতে ভীষণ আগ্রহ ছিল। তাকে এ ব্যাপারে উৎসাহ দিতেন তার কাকা। এমনটাই জানিয়েছেন ফাতিমাতের বাবা ইব্রাহিম এম। একটি কারখানায় কাজ করেন ইব্রাহিম। ফাতিমাতের মা গৃহবধূ। স্বামী স্ত্রীর একান্ত ইচ্ছে ছিল রাজ্য ব্যাপী এই পরীক্ষায় ভালো ফল করুক তাদের মেয়ে।

হিন্দু পুরাণ ও সাহিত্যে পড়তে খুব ভালোবাসেন ফাতিমাত। তার স্কুলের প্রধান শিক্ষক শিবরাম এইচডি এবং পরীক্ষার কো-অর্ডিনেটর পি সত্যশঙ্কর ভাট জানিয়েছেন, ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেরাই পড়ে পরীক্ষা দিতে আসে। তবে পরীক্ষা দেওয়া বাধ্যতামূলক নয়। তবে এই পরীক্ষার সঙ্গে ধর্মের কোনও যোগ নেই। রামায়ণ, মহাভারতকে সাহিত্য হিসেবেই দেখা হয়।

সর্বোদয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর মোট ৩৯ জন পরীক্ষায় বসেছিল। মূলত অষ্টম এবং নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদেরই পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়েছিল।






মন্তব্য চালু নেই