মেইন ম্যেনু

রাম গোপাল ভার্মার আদর্শ পর্নস্টার টোরি ব্ল্যাক

বলিউডের পরিচালক রাম গোপাল ভার্মা বরাবরই স্পষ্টবক্তা হিসাবে পরিচিত। খোলাখুলি নিজের মনের কথা বলতে দ্বিধাবোধ করেন না তিনি। এবার তার স্পষ্ট কথা বি-টাউনে বিস্ফোরক ঘটিয়েছে। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে তার আত্মজীবনী ‘গানস অ্যান্ড থাইজ’। সেখানে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন সমাজ কর্মী মাদার তেরেসাকে নন, পর্নস্টার টোরি ব্ল্যাককে চেনেন। আর তাই তেরেসাকে সরিয়ে টোরি ব্ল্যাককে নিজের আদর্শ করতে বিন্দুমাত্র কুণ্ঠিত নন পরিচালক রামগোপাল ভার্মা।

তবে যেখানে বিশ্ববাসী এক নামে চেনেন মাদার তেরেসাকে সেখানে কেন এই পরিচালক চেনেন না এমন প্রশ্নের জবাবে রাম গোপাল বলেন, তার কাজকর্মের সম্যক ধারণা নেই ভার্মার। কেননা তিনি তো সমাজসেবামূলক কোনও কাজের সঙ্গে জড়িত নন। তাই তেরেসার কাজের গভীরতা তার পক্ষে জানা সম্ভব নয়। কিন্তু সিনেজগতের সঙ্গে যুক্ত থাকার সুবাদে চেনেন টোরি ব্ল্যাককে। টোরির বেশ কয়েকটা সাক্ষাৎকার দেখেছেন তিনি। অভিভূত হয়েছেন তার চারিত্রিক দৃঢ়তায়। সমস্ত সংস্কারের বেড়াজাল ভেঙে টোরি যেভাবে পর্নকেই নিজের পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন, এবং তা সমক্ষে প্রকাশ করতে দ্বিধা করেননি-সেই মানসিক জোর মুগ্ধ করেছে রামগোপালকে। চরিত্রগত দৃঢ়তা, খোলাখুলি কথা বলার সৎসাহসে তাই টোরিকেই আদর্শ করেছেন ভার্মা।

আর তাই আত্মজীবনীর আত্মজীবনীর দু’মলাটের পৃথিবীতে এরকম চমকদার উপাদানে নিজের জীবনকে তুলে এনেছেন এই বলিউডি পরিচালক। নিজের বিশ্বাস অনুযায়ী যেমন ছবি তৈরি করেন, মতামতও দেন তেমনই স্বীয় বিশ্বাসের উপর ভিত্তি করেই। নিজের প্রতি সেই বিশ্বাস থেকেই জীবনে টোরির অবদানকে স্বীকার করেছেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই