মেইন ম্যেনু

রাস্তায় গাড়ি পার্ক করে যুগলের সঙ্গম, পাবলিকের ধোলাই

আমির খান অভিনীত ‘পিকে’ সিনেমাটি মুক্তি পাবার পরে ‘ডান্সিং কার’ কথাটি বেশ জনপ্রিয় হয়। নির্জন জায়গায় পার্ক করা গাড়ির ভেতরে সঙ্গমরত যুগলের শরীরের আন্দোলনে দুলে উঠছে। ‘পিকে’র ভাষায় সেটাই হল ডান্সিং কার। সম্প্রতি তেমনই এক ‘নৃত্যরত গাড়ি’কে ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল ভারতের গুজরাটের বাদোদরায়।

জানা যায়, মহেশ জাদেজা এবং মনীষা কাপাডিয়ার মধ্যে প্রেম চলছিল। মহেশ অবশ্য বিবাহিত। বাড়িতে তার স্ত্রী ও দুই সন্তানও রয়েছে। তিনিই সহকর্মী মনীষার প্রেমে পড়েন। এতে আপত্তি ছিল না মনীষারও। তিনিও বিবাহিত মহেশের সঙ্গে সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যান।

প্রায়শই দু’জনকে অফিস ও অফিসের বাইরে এক সঙ্গে দেখা যেত। কয়েকদিন আগে বাদোদরার রুকমানি নগর এলাকার একটি ব্যস্ত রাস্তার ধারে মহেশ তার গাড়ি দাঁড় করিয়ে মনীষার সাথে কামলীলায় মত্ত হন।

পথচারীরা তাদের এ ধরনের কার্যকলাপ দেখে জোর করে গাড়ির দরজা খুলে ফেলেন। এসময় তারা নিজেদের আবৃত করার চেষ্টা করতে থাকেন। পরে তাদের গাড়ি থেকে ওই অবস্থাতেই টেনে বের করে স্থানীয় জনতা মারধর করে মহেশ-মনীষাকে তুলে দেন পুলিশের হাতে।

রুকমানি নগর থানার পুলিশ দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদের পরে ছেড়ে দেয় বলে জানা গেছে। এদিকে এ ঘটনাটি কয়েকজন যুবক মোবাইলে






মন্তব্য চালু নেই