মেইন ম্যেনু

রিজার্ভের অর্থ লুটের সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারাই জড়িত : এফবিআই

রিজার্ভের অর্থ লুটের ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জড়িত রয়েছে বলে তথ্য-প্রমাণ পেয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। একইসঙ্গে তারা বলছে, কম্পিউটার হ্যাকারদের লক্ষ্য ছিল এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার চুরি করে নেওয়ার। মঙ্গলবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এ সংক্রান্ত এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা বাংলা প্রেস।

এফবিআই সন্দেহ প্রকাশ করে বলছে, রিজার্ভের অর্থ চুরি বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা এ কাজে জড়িত রয়েছে। বিষয়টিকে তারা ইনসাইড জব উল্লেখ করে বলছে, এ ঘটনার সঙ্গে ব্যাংকের ভিতরের একটি অংশ জড়িত রয়েছে।

এদিকে, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ লুটের ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংক ও সিআইডির দাবি করা রয়টার্সের প্রতিবেদনটিকে মিথ্যা, অযথার্থ, বিভ্রান্তিকর এবং ভিত্তিহীন বলে প্রত্যাখ্যান করেছে সুইফট।

এ বিষয়ে সোমবার দেয়া এক বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক এ সংগঠনটি বলছে, সুইফ অন্যান্য গ্রাহকদের মতো বাংলাদেশ ব্যাংকের সিস্টেমের নিরাপত্তার দায় নেবে না। সুইফ সিস্টেম নির্দিষ্ট পাসওয়ার্ড দিয়েই নিয়ন্ত্রিত হয়। ব্যাংকের অন্যান্য বিভাগের নিরাপত্তার মতো এই নিরাপত্তাকেও তাদের অভ্যন্তরীণ ব্যবস্থা হিসেবে দায়িত্ব নিতে হবে।

মঙ্গলবার ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অফ নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক রয়েছে। বৈঠকে সুইফটের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের এই ভিত্তিহীন অভিযোগের বিষয়টি আলোচনা করা হবে। একইসঙ্গে সুইফট সতর্ক করে বলছে, সুইফট এই বৈঠকের পর থেকে এই বিষযে ভবিষ্যতে আর কোনো কথা বলবে না।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই